আক্রান্ত
১১৯৩১
সুস্থ
১৪৩০
মৃত্যু
২১৭

ফটিকছড়িতে এবার গার্মেন্টস কর্মী করোনা শনাক্ত

0
high flow nasal cannula – mobile

ফটিকছড়িতে গার্মেন্টস কর্মীর শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। করোনা শনাক্ত হওয়া ওই নারীর বয়স ২৬। তিনি উপজেলার বাগান বাজার ইউনিয়নের পূর্ব হলদিয়া গ্রামের বাসিন্দা।

জানা গেছে, ওই গার্মেন্টস কর্মী গত ৩ মে চট্টগ্রামের সাগরিকা থেকে ফটিকছড়িতে এসেছেন। ঐদিন চট্টগ্রামে তার নমুনা পরীক্ষা করা হলে ৮ মের রিপোর্টে তিনি করোনা পজিটিভ হয়েছেন। বর্তমানে তিনি স্বাভাবিক রয়েছেন। তাকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে পাঠানোর জন্য ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

উল্লেখ্য, এর আগে ফটিকছড়িতে একজন ডাক্তার করোনা পজিটিভ হলেও পরবর্তীতে তিনি সুস্থ হয়ে যান।

এ ব্যাপারে ওই গার্মেন্টস কর্মী বলেন, ‘আমি গত তিন মাস আগে থেকে সাগরিকায় একটি গার্মেন্টসে চাকরি করছি। স্বামীর সাথে বনিবনা না হওয়ায় চাকরিটি ছেড়ে দিয়েছি। কিন্তু আমি বাসায় ছিলাম। আমি কীভাবে এ ভাইরাসের সংস্পর্শে এলাম তা আমিও বুঝতে পারছি না। আমার জ্বর ও কাঁশি থাকায় জমিদারের পরামর্শে করোনা পরীক্ষা করতে দিয়েছি। এর পর আমি বাড়িতে চলে আসি। আমাকে ডাক্তাররা কিছু ওষধ খেতে দিয়েছেন সেগুলো খাচ্ছি। শুক্রবার বিকেলে আমাকে ফোন করে জানাল আমার করোনা পজিটিভ।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমার এক মেয়ে, মা বাবা ও এক ভাই রয়েছে। আমার মেয়েকে বড় বোনের কাছে পাঠিয়ে দিয়েছি। আমি মোটামোটি সুস্থ। কাঁশি আছে, জ্বর নেই। শনিবার বিকেলে নয়তো হয় কাল আমি হাসপাতালে ভর্তি হবো।’

ফটিকছড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সায়েদুল সায়েদুল আরেফিন বলেন, করোনা পজিটিভ পাওয়া নারীর বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে। এছাড়াও ফটিকছড়ি সাংসদ নজিবুল বশর মাইজভান্ডারি এবং উপজেলা পরিষদের পক্ষ থেকে তার কাছে পর্যাপ্ত খাদ্য সামগ্রী পাঠানো হয়েছে।

এএস/এসএস

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ManaratResponsive

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন

পিপিই-মাস্ক মানসম্মত কিনা সেই প্রশ্নও উঠছে

জটিল হচ্ছে লড়াই, করোনার থাবায় চট্টগ্রামের ১৯ চিকিৎসক

নারীদের তুলনায় ৫ গুণ বেশি পুরুষ আক্রান্ত

২১ থেকে ৪০— চট্টগ্রামে তরুণরাই করোনার সহজ শিকার

ksrm