প্রেসিডেন্সি ইন্টারন্যাশনাল স্কুলে দাবা প্রশিক্ষণ ও প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণী

দাবা শিশুদের শুধু চিন্তার গভীরতা, স্মৃতিশক্তি বৃদ্ধি, হিসাবনিকাশ ও মনোযোগ আনতেই সাহায্য করে না, এটা বাচ্চাদের নিজের দায়িত্ব নিতেও শেখায়। শিশুদের সামাজিক আচরণেও বেশ ইতিবাচক পরিবর্তন আনতে সাহায্য করে দাবা। তাই শিশুদের দাবা খেলার প্রতি আগ্রহ বাড়াতে মাসব্যাপি দাবা প্রশিক্ষণ ও প্রতিযোগিতার অয়োজন করে প্রেসিডেন্সি ইন্টারন্যাশনাল জুনিয়র স্কুল।

প্রেসিডেন্সি ইন্টারন্যাশনাল স্কুলে দাবা প্রশিক্ষণ ও প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণী 1

২১ দিনব্যাপী শ্রেণিভিত্তিক প্রথম শ্রেণি ও দ্বিতীয় শ্রেণির দাবা প্রশিক্ষণ শেষে গত ১-৫ সেপ্টেম্বর পাচ রাউন্ড সুইস-লিগ পদ্ধতিতে অনুষ্ঠিত পাঁচদিনব্যাপি এই প্রতিযোগিতায় ১৮০ জন শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে। প্রতিযোগিতায় প্রথম শ্রেণি থেকে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হয়েছে মুসাব বিন রনক ও রানার আপ মোহাম্মদ আহিল হক।

প্রেসিডেন্সি ইন্টারন্যাশনাল স্কুলে দাবা প্রশিক্ষণ ও প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণী 2

দ্বিতীয় শ্রেণি থেকে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হয়েছে মিদরার উদ্দিন এবং রানারআপ তাফহিম ওয়াফিক। এছাড়া প্রথম শ্রেণি থেকে প্রথম স্থান অধিকার করেছে মোহাম্মদ মুহাইমিন নওশাদ, দ্বিতীয় স্থান অধিকার করে ওবায়দুল্লাহ তিবিয়ান এবং তৃতীয় স্থান অধিকার করেছে ওয়াসি উদ্দিন আহমেদ। অন্যদিকে দ্বিতীয় শ্রেণি থেকে প্রথম স্থান অধিকার করে আরশ মাহির, দ্বিতীয় স্থান অধিকার করে আব্দুল্লাহ রায়ান, তৃতীয় স্থান অধিকার করে মো: আহনাফ আফরাজ সায়ান।

প্রেসিডেন্সি ইন্টারন্যাশনাল স্কুলে দাবা প্রশিক্ষণ ও প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণী 3

Yakub Group

প্রতিযোগিতা শেষে সোমবার (১৩ নভেম্বর) সকালে স্কুল প্রাঙ্গণে অয়োজিত এক অনাড়ম্বর অনুষ্ঠানে বিজয়ীদের হাতে পুরষ্কার তুলে দেওয়া হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন দি বিজনেস স্ট্যান্ডার্ড পত্রিকার চট্টগ্রাম ব্যুরো চিফ সামছুদ্দিন ইলিয়াস।

প্রধান অতিথির শুভেচ্ছা বক্তব্যে তিনি ছাত্রছাত্রীদের উদ্দেশ্য বলেন, দাবা শিশুদের মানসিক বিকাশে সহায়ক ও কৌশলী হতে শেখায়। যারা দাবা খেলে তারা স্মৃতিশক্তিতে অন্যদের থেকে এগিয়ে থাকে। রিডিং স্কিল উন্নত করে ও মনোযোগ বাড়াতে সাহায্য করে। বিশ্বের উন্নত দেশগুলোতে দাবা খেলাকে বেশ গুরুত্ব দেওয়া হয়। আরমেনিয়াতে সরকার নিজস্ব তহবিল থেকে অর্থ খরচ করে শিশুদের দাবা খেলায় আগ্রহী করে তোলে।

দেশের সব স্কুলে দাবা প্রতিযোগিতা আয়োজনের ওপর গুরুত্বারোপ করে তিনি খেলাধুলার পাশাপাশি শিশুদের পরিবেশের জন্য ক্ষতিকর প্লাস্টিক বর্জ্য যেখানে সেখানে না ফেলার আহবান জানান।

শুভেচ্ছা বক্তব্য শেষে প্রধান অতিথি ছাত্রছাত্রীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!