s alam cement
আক্রান্ত
১০২৩১৪
সুস্থ
৮৬৮৫৬
মৃত্যু
১৩২৮

প্রেমের ফাঁদ পেতে পতেঙ্গা সৈকতে গ্রেপ্তার ধর্ষণ মামলার আসামি

0

বান্ধবীর জন্মদিনের অনুষ্ঠানে এক প্রবাসীর স্ত্রীকে ধর্ষণ করার পর এতোদিন তিনি পালিয়ে ছিলেন। সেই ধর্ষককে মধুর প্রেমের ফাঁদে ফেলে ধরলো পুলিশ।

ধর্ষণ মামলার ওই আসামিকে কৌশলে এক নারীর প্রেমের ফাঁদে ফেলে পুলিশ। বুধবার (১ সেপ্টেম্বর) রাতে ওই নারীর সঙ্গে চট্টগ্রামের পতেঙ্গার সি-বিচ এলাকায় দেখা করতে গেলে তাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

ধর্ষণ মামলার এই আসামির নাম আইমন ভূঁইয়া (২৬)। আইমন নোয়াখালীর সেনবাগ উপজেলার কাদরা ইউনিয়নের নন্দীর পাড় এলাকার মো. মোস্তফার ছেলে।

বৃহস্পতিবার (২ সেপ্টেম্বর) বিকেলে তাকে নোয়াখালী চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

সেনবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবদুল বাতেন মৃধা বলেন, ‘বান্ধবীর জন্মদিনের অনুষ্ঠানে এক প্রবাসীর স্ত্রীকে (২২) ধর্ষণের অভিযোগে মামলা হয়। আইমন ভূঁইয়া ওই মামলার এজাহারভুক্ত আসামি। তাকে চট্টগ্রামের পতেঙ্গা থেকে গ্রেপ্তার করে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

আব্দুল বাতেন মৃধা জানান, ২৩ আগস্ট এ ঘটনায় ফরহাদকে প্রধান আসামি করে ৩ জনের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন ভুক্তভোগী গৃহবধূ। ওই মামলার ৩ নম্বর আসামি আইমন ভূঁইয়া।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, গত ২০ আগস্ট রাতে ভুক্তভোগী গৃহবধূ জন্মদিনের অনুষ্ঠানে তার বান্ধবীর বাড়িতে যান। কেক কাটার পর স্থানীয় লেদু মিয়ার ছেলে ফরহাদ (২৫) পাঁচ-সাতজন সহযোগী নিয়ে ওই বাড়িতে যান। এ সময় তারা ওই গৃহবধূর সঙ্গে রাজন নামের এক যুবকের অনৈতিক সম্পর্ক আছে বলে অভিযোগ তোলেন। পরে তাদের আটকে রেখে ২০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করেন।

এরপর তারা রাজনকে ছেড়ে দিলেও গৃহবধূকে আটকে রাখেন। পরে সহযোগীদের পাহারায় রাতে ফরহাদ ও অন্যরা তাকে ধর্ষণ করেন।

ManaratResponsive

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm