প্রেমিক নেতার বাড়িতে প্রেমিকার অনশন, ৪৮ ঘণ্টা পর বিয়ে

পেকুয়া

0

প্রেমিক ছাত্রদল নেতার বাড়িতে গিয়ে ৪৮ ঘণ্টা অনশন করছেন এক প্রেমিকা। অবশেষে প্রেমিকও ৬ লাখ টাকা কাবিনে বিয়ে করেছেন প্রেমিকাকে। ঘটনাটি ঘটেছে কক্সবাজারের পেকুয়া উপজেলার উজানটিয়া গ্রামে।

চকরিয়া কলেজের বিএ পড়ুয়া ছাত্রী টইটং ইউনিয়নের ভেলুয়ার পাড়া এলাকার আমিন শরীফের মেয়ে জুলেখা বেগম তার দীর্ঘদিনের প্রেমিক উজানটিয়া ইউনিয়নের সুতাচুরা এলাকার নবী হোসেনের ছেলে চট্টগ্রাম সিটি কলেজে ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগ থেকে মাস্টার্স পরীক্ষার্থী মুহাম্মদ কাইয়ুম অন্য এক মেয়ের সঙ্গে বিয়ের পিঁড়িতে বসছেন এমন সংবাদ পেয়ে প্রেমিকের বাড়িতে অনশন শুরু করে।

মঙ্গলবার (২২ অক্টোবর) উজানটিয়া ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের দক্ষিণ সুতাচুরা এলাকার নবী হোসেনের বাড়িতে বিয়ের কাজটি সম্পন্ন হয়।

স্থানীয় ইউপি সদস্য হাবিবুর রহমান বলেন, ‘গত ২০ অক্টোবর বিকেল ৪টায় এক নারী হঠাৎ ওই এলাকার নবী হোসেনের বাড়িতে উপস্থিত হয়ে অবস্থান নেয়। এ সময় ওই নারী স্থানীয় এলাকাবাসী ও পরিবারের লোকজনকে জানান, প্রবাসী নবী হোসেনের পুত্র মোহাম্মদ কাইয়ুম প্রকাশ হেফাজের (২৫) সাথে তার দীর্ঘদিন ধরে প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে। তাকে বিয়ের আশ্বাস দিলেও কাইয়ুম অন্যত্র বিয়ের কাজ সম্পন্ন হচ্ছে শুনে তিনি নিজেই চলে আসেন প্রেমিকের বাড়িতে। মঙ্গলবার দু’পরিবারের লোকজনের উপস্থিতিতে তাদের বিয়ে সম্পন্ন হয়।

এ বিষয়ে প্রেমিক উপজেলা ছাত্রদলের সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মোহাম্মদ কাইয়ুম বলেন, ‘জুলেখা বেগমের (২০) সঙ্গে আমার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে দীর্ঘ ৩ বছর আগে। তাকেও আমি মন থেকে ভালবাসি কিন্তু তার মনে সন্দেহ তৈরি হওয়ায় আমাকে না জানিয়ে সে নিজ থেকেই আমার বাড়িতে চলে আসে। তখন আমি মাস্টার্স পরীক্ষা দেওয়ার জন্য চট্টগ্রামে ছিলাম। পরে পরিবারের সদস্যদের বুঝিয়ে তাকে বিয়ে করি।’

প্রেমিকার পিতার বাড়ি টইটং ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আবুল কাশেম বলেন, ‘আমিন শরীফের মেয়ে জুলেখা বেগম পেকুয়ার উজানটিয়া ইউনিয়নে তার প্রেমিকের বাড়িতে অবস্থান নেওয়ার বিষয়টি ওই এলাকার এমইউপি হাবিবুর রহমান আমাকে জানানোর পর উভয়পক্ষের সঙ্গে কথা বলে সমাধান করেছি।’

এএইচ

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন