আক্রান্ত
৩১৫১
সুস্থ
২২৭
মৃত্যু
৭৬

প্রযুক্তিতে ভরপুর অন্য এক ক্রিকেট বিশ্বকাপ দেখবে দর্শকরা

যুক্ত হচ্ছে ৩৬০ ডিগ্রি ভিডিও রিপ্লের ব্যবস্থা

0

দিনের পর দিন আধুনিক বিশ্বের সাথে তাল মেলাতে গিয়ে অধুনা খেলাধুলায়ও বেশ পরিবর্তন এসেছে। অন্যান্য খেলার তুলনায় ক্রিকেটে প্রযুক্তির বেশ ব্যবহার হয়ে আসছে। এবারের ক্রিকেট বিশ্বকাপ হতে যাচ্ছে ইতিহাসের সর্বাধিক প্রচারিত এবং প্রযুক্তি নির্ভর বিশ্বকাপ। ৪৬ দিনব্যাপী এই আসরের মূল পর্বের ৪৮ টি ম্যাচ তো বটেই, সাথে প্রথম বারের মত ১০টি প্রস্তুতি ম্যাচও সরাসরি সম্প্রচার করতে যাচ্ছে আইসিসি। আর ম্যাচের চুলচেরা বিশ্লেষণের জন্য থাকছেন ২৪ জন ধারাভাষ্যকার।

শুধু তাই নয়, এই বিশ্বকাপের প্রতিটি ম্যাচে ব্যবহৃত হবে কমপক্ষে ৩২ টি ক্যামেরা। যার মধ্যে থাকবে ৮ টি আল্ট্রা মোশন ‘হক আই ক্যামেরা’ যা দিয়ে বলের সম্ভাব্য গতিবিধি নির্ণয় করা হয়ে থাকে। উইকেটের সামনে এবং পেছন দিকের ছবি নেয়ার জন্য স্টাম্পের সামনে এবং পেছনে দুইটি করে ক্যামেরা থাকবে। সাথে থাকবে স্পাইডার ক্যামেরা যা তারের মাধ্যমে বিচরণ করবে মাঠের চারদিক।

দর্শকদের জন্য চমক হিসেবে এবারের বিশ্বকাপে প্রথম বারের মত থাকছে ৩৬০ ডিগ্রি ভিডিও রিপ্লের ব্যবস্থা। অত্যাধুনিক প্রযুক্তি পিয়েরোর সাহায্যে একাধিক ক্যামেরার ভিডিও একসাথে করে ৩৬০ ডিগ্রি রিপ্লে দেখানো হবে। যা জটিল মুহুর্তগুলোকে বিশ্লেষণে সহযোগিতা করবে।

ইংল্যান্ড আর ওয়েলসের মাঠগুলো আকাশ ও ভূপৃষ্ঠ থেকে টিভির পর্দায় দেখানোর জন্যও থাকছে বিশেষ ব্যবস্থা। ড্রোন ক্যাম এর মাধ্যমে আকাশ থেকে গোটা স্টেডিয়ামগুলো দেখানো যাবে আর বাগি ক্যাম দিয়ে গ্রাউন্ডভিউ অর্থাৎ মাঠের ভূপৃষ্ঠের ভিডিও দেখানো হবে।

এছাড়া স্পোর্টস গ্রাফিক্স বিশেষজ্ঞ অ্যালস্টন এলিওট একটি নতুন গ্রাফিক্স প্যাকেজ তৈরি করেছে এবারের বিশ্বকাপ সম্প্রচার উপলক্ষে। যার মাধ্যমে গুরুত্বপূর্ণ স্কোর এবং পরিসংখ্যান খেলা চলাকালীন সময়ে তুলে ধরা হবে টিভির পর্দায়।

আইসিসির মিডিয়া স্বত্বের প্রধান আরতি দাবাস বলেন, ‘এমন একটি সম্প্রচারকারী দল পেয়ে আমি আনন্দিত। ক্রিকেট ভক্তদের কাছে এরা এবারের বিশ্বকাপকে প্রাণবন্ত করে তুলবে।’ তিনি আরও বলেন, ‘আমাদের লক্ষ্য হচ্ছে আগের যেকোনো বারের তুলনায় দর্শকদের এবার আরো বেশি সম্পৃক্ত করা। আমাদের বিচক্ষণ দল সেই উদ্দেশ্য সফলেরই পরিকল্পনা দিয়েছে। এবারে উন্নত প্রযুক্তির সাহায্যে ধারাভাষ্যকারদের সূক্ষ্ম বিশ্লেষণ উপভোগ করতে পারবে দর্শকরা, যা এই বিশ্বকাপকে করে তুলবে আরো বেশি আকর্ষণীয়।’

আইসিসি টিভি মাঠের বাইরের ঘটনা নিয়েও বিষয়বস্তু তৈরি করে তাদের সম্প্রচার অংশীদারদের সরবরাহ করার পরিকল্পনা গ্রহণ করছে। এই বিষয়বস্তুর মধ্যে থাকবে প্রতিদিনের প্লেয়ার প্রোফাইল, টিম ফিচার, ম্যাচ প্রিভিউ, ভেন্যু ফিচারসহ মাঠের বাইরের আরও অনেক তথ্য।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

Manarat

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন
ksrm