s alam cement
আক্রান্ত
১০১৩১২
সুস্থ
৮৬১৬৯
মৃত্যু
১২৮২

প্রতি কলড্রপে ১ মিনিট কল ফেরত পাচ্ছে গ্রাহক

0

প্রতি কলড্রপের জন্য মোবাইল গ্রাহককে এক মিনিট করে কল ফেরত দেওয়া হচ্ছে।

রোববার (২২ আগস্ট) বিকেলে ‘টেলিযোগাযোগ সেবা ও নিয়ন্ত্রক সংস্থার কার্যক্রম’ বিষয়ে অনলাইন প্লাটফর্মে গণশুনানিতে এ তথ্য জানিয়েছে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)।

শুনানিতে গ্রাহকরা টেলিযোগাযোগ সেবা প্রাপ্তির ক্ষেত্রে যেসব সমস্যার সুম্মখীন হয়েছেন তা তুলে ধরেন এবং কমিশনের সংশ্লিষ্ট বিভাগের কর্মকর্তারা ক্রমান্বয়ে সব প্রশ্নের উত্তর দেন।

প্রায় তিন ঘণ্টাব্যাপী এই গণশুনানির প্রশ্নোত্তর পর্বে তানজিল হাসান নামে একজন গ্রাহক জানতে চেয়েছেন ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেটের গতি বৃদ্ধি এবং অসহনীয় কলড্রপের প্রতিকারের বিষয়ে। জবাবে কমিশনের ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড অপারেশন্স বিভাগের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এহসানুল কবির বলেন, ইন্টারন্যাশনাল ইন্টারনেট গেটওয়ে (আইআইজি) অপারেটররা প্রতি জেলায় পয়েন্ট অব প্রেজেন্স (পপ) বসালে ব্রডব্যান্ড সেবার গতি বাড়বে এবং দুই বা ততোধিক কলড্রপের ক্ষেত্রে প্রতি কলড্রপের জন্য গ্রাহককে ১ মিনিট করে কল ফেরত দেওয়ার বিধান চালু রয়েছে।

নেটওয়ার্ক দুর্বলতার কারণে টেলিটকের কল এবং ডাটা ব্যবহার করা যায় না বলে অভিযোগ করেন শরীফুল ইসলাম নামে এক গ্রাহক। জবাবে বিটিআরসি চেয়ারম্যান শ্যাম সুন্দর শিকদার বলেন, টেলিটকের মান উন্নয়নে সরকার ইতোমধ্যে ২ হাজার ২০৪ কোটি টাকার প্রকল্প অনুমোদন দিয়েছে এবং এটি বাস্তবায়ন হলে সেবার মান বাড়বে।

অবৈধ ফোন বন্ধের বিষয়ে আবুল আযম নামে এক গ্রাহকের প্রশ্নের জবাবে স্পেকট্রাম বিভাগের মহাপরিচালক ব্রি. জে. মো. শহীদুল আলম জানান, বিভিন্ন উপায়ে দেশে অবৈধ সেট আসছে বিধায় ন্যাশনাল আইডেনটিটি ইকুইপমেন্ট রেজিস্টার করা হয়েছে। প্রতিদিন ১ লাখের বেশি সেট এনইআইআর-এ যুক্ত হয়, যার মধ্যে ৩০ ভাগ অবৈধ হ্যান্ডসেট। অক্টোবরে এনইআইআরের পরীক্ষামূলক সেবা বন্ধ হওয়ার পর অবৈধ সেটের বিষয়ে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

Din Mohammed Convention Hall

অনুুষ্ঠানে গণশুনানি কমিটির সভাপতি ও বিটিআরসি চেয়ারম্যান শ্যাম সুন্দর শিকদার স্বাগত বক্তব্য দেন।

এতে অন্যান্যের মধ্যে কমিশনের ভাইস-চেয়ারম্যান জনাব সুব্রত রায় মৈত্র, স্পেকট্রাম বিভাগের কমিশনার প্রকৌশলী এ কে এম শহীদুজ্জামান, প্রশাসন বিভাগের মহাপরিচালক মো. দেলোয়ার হোসাইন, লিগ্যাল এবং লাইসেন্সিং বিভাগের মহাপরিচালক আশীষ কুমার কুন্ডু, অর্থ হিসাব ও রাজস্ব বিভাগের মহাপরিচালক মো. মেসবাহুজ্জামানসহ বিভিন্ন বিভাগের পরিচালক ও অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

ManaratResponsive

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm