আক্রান্ত
৩৩৫৭
সুস্থ
২৪২
মৃত্যু
৭৭

প্রতিবন্ধিকে পিটিয়ে আহত করেছেন চেয়ারম্যান

0

পৈত্রিকভাবে প্রাপ্ত জমির গচ্ছিত টাকা চাওয়ায় প্রতিবন্ধি সৎভাই বেদার মিয়াকে (৪০) নির্মমভাবে পিটিয়েছেন কক্সবাজার সদর উপজেলা ভাইস-চেয়ারম্যান রশিদ মিয়া।

এতে তার শরীরের বিভিন্ন অংশ মারাত্মকভাবে জখম হয়েছে। সোমবার (৩১ মার্চ) বিকেলে ঝিংলজা হাজীপাড়ার ভাইস-চেয়ারম্যানের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, রশিদ মিয়ার পিতা নবাব মিয়ার তিন স্ত্রী। তৃতীয় স্ত্রীর পুত্র বেদার মিয়া। তিনি মানসিক প্রতিবন্ধি। তার মা বেঁচে নেই।

তাদের বড়ভাই ঝিলংজা ইউনিয়ন পরিষদের ২নং ওয়ার্ডের মেম্বার জহির মিয়া কাজল চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে জানান, পৈত্রিক সূত্রে পাওয়া তাদের সবার জমি রেললাইনের অধিগ্রহণে পড়ে। ওই টাকা উত্তোলনের জন্য সবাই রশিদ মিয়াকে এটর্নি পাওয়ার দেয়। পাওয়ার পেয়ে টাকা তুলে রশিদ ভাই-বোনদের ভাগের অনেক টাকা আত্মসাৎ করে। এর মধ্যে বেদার মিয়া প্রতিবন্ধি হওয়ায় তার ভাগের টাকা নিজের কাছে রেখে দেয় ভাইস-চেয়ারম্যান রশিদ মিয়া।

কাজল জানায়- অনেকদিন ধরে বেদার মিয়া তার পাওনা খুঁজে আসছিল। বিভিন্ন সময় ১০০/২০০ টাকা হাতে ধরিয়ে তাড়িয়ে দিতো। এভাবে বেদার মিয়ার ১৪ লাখ টাকা কুক্ষিগত করে রাখে ভাইস-চেয়ারম্যান রশিদ মিয়া।

প্রতিবারের মতো টাকা চাইতে গেলে মঙ্গলবার কাঠ দিয়ে বেদার মিয়ার শরীরের বিভিন্ন অংশে নির্মমভাবে পেটায় রশিদ মিয়া। পরে বিষয়টি নিয়ে আমরা প্রতিবাদ করলে আমাদের সাথেও অসদাচারণ করেন রশিদ মিয়া।

বিষয়টি র‌্যাবকে জানালে ঘটনাস্থলে যান র‌্যাবের একটি দল। পরে আহত অবস্থায় বেদার মিয়াকে উদ্ধার করে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়। এই ঘটনায় থানায় এজাহার দায়ের করা হয়েছে।

অভিযোগের ব্যাপারে জানতে চাইলে ভিন্ন কথা বলেছেন কক্সবাজার সদর উপজেলার ভাইস-চেয়ারম্যান রশিদ মিয়া। তিনি চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে বলেন, ভিটার এক জায়গায় সবাই ময়লা ফেলে আসছে দীর্ঘদিন। একারণে পরিবেশ দূষিত হচ্ছে।

তিনি বলেন-বর্তমানে করোনাভাইরাস নিয়ে পরিস্থিতি খারাপ হওয়ায় বিষয়টি নিয়ে আমি আরো সিরিয়াস হই। ময়লাগুলো পরিস্কার করে ফেলেছি। তারপরও তারা আবারো সেখানে ময়লা ফেলছে। এটা বলাতে বেদার মিয়া আমার সাথে খারাপ ব্যবহার করে। এতে রাগের মাথায় তাকে আমি একটা গাছের চিকন ডাল দিয়ে আঘাত করেছি।

ভাইস চেয়ারম্যান রশিদ মিয়া দাবি করেন, ঘটনাকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করে আমার মানহানি করার জন্য টাকা আত্মসাতের অহেতুক অভিযোগ করা হচ্ছে। প্রকৃত ঘটনা জানার জন্য তিনি সাংবাদিকদের সরেজমিন পরিদর্শনের আহ্বান জানান।

এসএইচ

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

Manarat

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন
ksrm