পাহাড় ধস মোকাবেলায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে সেনাবাহিনীর মহড়া

0

টানা কয়েকদিনের ভারী বর্ষণে কক্সবাজার জেলার বিভিন্নস্থানে পাহাড় ধসের ঘটনায় ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। তাছাড়া পাহাড় ধসে টেকনাফে মারা গেছে দুই শিশু। সমন্বিত পরিকল্পনা এবং সুষ্ঠু উদ্ধার পরিকল্পনা থাকলে ক্ষয়ক্ষতি অনেকাংশেই কমানো সম্ভব বলে মনে করছেন সচেতন মহল। এদিকে সেনাবাহিনীর দশম পদাতিক ডিভিশনের সাতটি সেনা ক্যাম্পের তত্ত্বাবধানে রোহিঙ্গা নারী ও পুরুষ স্বেচ্ছাসেবকদের সমন্বয়ে পাহাড় ধ্বস এবং দুর্যোগ মোকাবেলার উপর ১২ সেপ্টেম্বর সচেতনতামূলক মহড়া অনুষ্ঠিত হয়।

মহড়ার শুরুতে প্রত্যেক সেনাক্যাম্প কমান্ডার (অফিসার) অংশগ্রহণকারীদের প্রয়োজনীয় ব্রিফিং প্রদান করেন এবং সেনা সদস্যদের অংশগ্রহণে একটি মহড়া করে দেখানো হয়। পরবর্তীতে রোহিঙ্গা নারী ও পুরুষ স্বেচ্ছাসেবকদের অংশগ্রহণে হাতে-কলমে মহড়ার অনুশীলন করানো হয়।
মহড়ায় অংশগ্রহণকারী স্বেচ্ছাসেবকদের প্রয়োজনীয় উদ্ধার সরঞ্জামাদি ব্যবহার ও সুষ্ঠুভাবে উদ্ধার কার্যক্রম পরিচালনার উপরে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়। গত দুইদিনে পরিচালিত এ মহড়ায় সর্বমোট ৪ হাজার রোহিঙ্গা স্বেচ্ছাসেবক অংশগ্রহণ করে। আগামী ৪দিনে আরো বেশ কয়েকটি অনুশীলনের মাধ্যমে প্রায় ১০ হাজার রোহিঙ্গা স্বেচ্ছাসেবকদের পারদর্শী করে তোলার পাশাপাশি যেকোনো প্রাকৃতিক দুর্যোগ ও ক্ষয়ক্ষতি মোকাবেলায় সেনাবাহিনীর নেতৃত্বে এ ধরনের কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

এএইচ

Loading...
আরও পড়ুন