পাহাড়ের ঢালুতে থাকা ঝুঁকিপূর্ণ বসতি অপসারণ করবে জেলা প্রশাসন

0

চট্টগ্রাম নগরীতে পাহাড়ধসে হতাহতের ঘটনার পর আকবরশাহের বিজয়নগর উত্তর পাহাড়তলীর ফিরোজশাহ এলাকা পরিদর্শন করেছেন জেলা প্রশাসক মো. মমিনুর রহমান।

শনিবার (১৮ জুন) দুপুর দেড়টার দিকে ফিরোজশাহ এলাকায় গিয়ে পাহাড়ের পাদদেশে বসবাস করা মানুষদের দ্রুত নিরাপদ স্থানে সরে যেতে বলে জেলা প্রশাসক।

চট্টগ্রাম নগরীতে ১৯টি আশ্রয়কেন্দ্র প্রস্তুত আছে জানিয়ে জেলা প্রশাসক বলেন, ‘আশ্রয়গ্রহণকারীদের জন্য পর্যাপ্ত খাদ্য সরবরাহ নিশ্চিত করা হয়েছে। পাহারধসে ক্ষয়ক্ষতি কমাতে পাহাড়ের ঢালুতে থাকা ঝুঁকিপূর্ণ স্থাপনা অপসারণের সিদ্ধান্ত নেওয়া হচ্ছে। এসব এলাকার গ্যাস, বিদ্যুৎ ও পানির সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হবে।’

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মু. মাহমুদ উল্লাহ মারুফ, মো. তৌহিদুল ইসলাম, চান্দগাঁও সার্কেলের সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. মাসুদ রানা, জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা সজীব কুমার চক্রবর্তী, স্থানীয় কাউন্সিলরসহ চট্টগ্রাম নগর পুলিশের কর্মকর্তাদের সহযোগিতায় এসব অভিযান পরিচালনা করা হবে বলে জানান জেলা প্রশাসক।

এর আগে গতকাল শুক্রবার (১৭ জুন) রাতে ফিরোজশাহ এলাকায় পাহাড়ধসে চারজন নিহত ও দুইজন আহত হন। গত বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই পাহাড়ের ঢালুতে বসবাসকারীদের নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেওয়ার জন্য মাইকিং ও লিফলেট বিতরণ করা হয়।

Yakub Group

কোয়াড পি-ব্লক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ফিরোজশাহ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ওয়াইডব্লিউসিএ স্কুল ও হাজী হযরত (রা.) আলিয়া মাদ্রাসায় এখনও পর্যন্ত ৩২টি পরিবারকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm