পাঁচলাইশে নিজকে ‘র‌্যাব’ দাবি করে নিজেই হাজতে প্রতারক

0

নিজেকে র‌্যাব সদস্য পরিচয় দিয়ে অপারেশনের জন্য নোহা মাইক্রো রিকুইজিশনও করেছিল প্রতারক রেজাউল হক সজল (১৮)। অপারেশনের জন্য স্থানীয় এক যুবককে ডেকে গাড়িতে তুলতে চাইলেই তখন ঘটে বিপত্তি। স্থানীয় লোকজন সজলকে আটকে পাঁচলাইশ থানায় খবর দিলে তাকে আটক করে পুলিশ।

বুধবার (১৬ অক্টোবর) রাত এগারোটায় পাঁচলাইশ থানাধীন মুরাদপুর ডেকোরেশন গলির মুখে এই ঘটনা ঘটে। অভিযুক্ত রেজাউল হক সজল কিশোরগঞ্জের মোহাম্মদ কুদ্দুস ও সুখি বেগমের ছেলে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে পাঁচলাইশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কাশেম চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে বলেন, ‘আটক রেজাউল হক সজল র‌্যাব পরিচয়ে কামাল হোসেন বিপ্লব নামে এক চালক থেকে একটি নোহা মাইক্রো রিকুইজিশন করে। তারপর জাহিদ নামে এক যুবককে সজলের সাথে অপারেশনে যাওয়ার জন্য বলে। জাহিদের সন্দেহ হলে তিনি থানায় খবর দেন।’

পুলিশ গেলে সজল নিজেকে র‌্যাব সদস্য পরিচয় দিয়ে একটি পরিচয়পত্র প্রদর্শন করে। যাতে তার নাম লিখা আছে সাহিউল হক। কর্তৃপক্ষের স্বাক্ষর বিহীন ওই পরিচয়পত্রের ফুটনোটে লিখা আছে ‘আন্ডারগ্রাউন্ড র এজেন্ট এন্ড শাপ শুটার’।

আটক সজলের বিরুদ্ধে প্রতারণার উদ্দেশ্যে সরকারি ভুয়া কর্মচারী পরিচয় দেওয়ার অপরাধে মামলা দায়ের করে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে বলেও জানান ওসি আবুল কাশেম ভূঁইয়া।

এডি/এফএম/মুআ

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন