আক্রান্ত
১৪৯৯১
সুস্থ
৩০৬১
মৃত্যু
২৪০

পরীক্ষা না করেই রিপোর্ট, ল্যাবে নেই ডাক্তার টেকনিশিয়ান

0

ডাক্তার বা পরীক্ষক কেউ নেই, নেই কোন ল্যাব টেকনিশিয়ানও। এমনকী প্রতিষ্ঠানের বৈধতার কাগজপত্রও নেই। তবুও বোয়ালখালীর শাকপুরার নিউ শেভরন ডায়াগনস্টিক সেন্টারটি রোগীর স্যাম্পল নেয় ও পরীক্ষা ছাড়াই রিপোর্টও দেয়। বুধবার (১৫ জুলাই) বিকেল ৩ টায় উপজেলার চৌমুহনী বাজারের পূর্ব পাশে আজিজ মার্কেটের দ্বিতীয় তলায় অভিযান চালিয়ে শেভরন ডায়াগনস্টিক সেন্টারটি সিলগালা করে মালিক আবু নইমকে এক লাখ টাকা জরিমানা করে উপজেলা প্রশাসন। জরিমানার সাজা পাওয়া আবু নইম উপজেলার সালেহ আহমদের ছেলে।

বোয়ালখালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার আছিয়া খাতুন নির্দেশ দিলে বুধবার বিকেলে সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. মোজাম্মেল হক চৌধুরী ভ্রামমাণ আদালত পরিচালনা করেন। অভিযানে বোয়ালখালী থানা পুলিশ তাকে সার্বিক সহায়তা করে।

অভিযানে গিয়ে ম্যাজিস্ট্রেট দেখলেন, ল্যাবটিতে কয়েকটি মেশিন ছিল। রোগীদের কাছ থেকে স্যাম্পলও নেওয়া হয়েছে পরীক্ষার জন্য। রোগের রিপোর্ট দেওয়া হচ্ছিল সংশ্লিষ্ট রোগটির পরীক্ষা না করেই। রিপোর্ট দেওয়ার সুবিধার জন্য আগে থেকেই ডায়াগনস্টিক সেন্টারের প্যাডে ল্যাব টেকনিশিয়ান ও ডাক্তারের স্বাক্ষর তৈরি রাখা হয়। পরে রিপোর্ট বানিয়ে পূর্বে স্বাক্ষর করা প্যাডে রোগীদের টেস্ট রিপোর্ট দেওয়া হত। রিপোর্ট প্যাডে স্বাক্ষর দেওয়া চিকিৎসককে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি বলেন, ‘ওই ডায়াগনস্টিক সেন্টারের সাথে আমার কোন সম্পর্ক নেই। আমি স্বাক্ষরও করিনি।’

এছাড়াও ডায়াগনস্টিক সেন্টারটিতে কোনো প্রশিক্ষিত ল্যাব টেকনিশিয়ান বা ল্যাব সহকারী পাওয়া যায়নি। ল্যাব পরিচালনার বৈধতার কাগজপত্র পরীক্ষা করে দেখা যায় সবগুলোই মেয়াদোত্তীর্ণ।

অবিলম্বেই ম্যাজিস্ট্রেট মোজাম্মেল হক ডায়াগনস্টিক সেন্টারটি সিলগালা করেন। প্রতিষ্ঠানটির মালিক আবু নইমকে ভোক্তা অধিকার আইন ২০০৯ এর অধীনে ১ লাখ টাকা জরিমানা করেন।

এ বিষয়ে সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. মোজাম্মেল হক চৌধুরী বলেন, ‘ভুয়া রিপোর্টের বিষয়ে গোপন খবর পেলে ডায়াগনস্টিক সেন্টারটিতে অভিযান চালাই। প্রতিষ্ঠানটি সিলগালা হয়েছে। মানুষের জীবন নিয়ে আর এভাবে খেলতে দেওয়া হবে না।’

উপজেলা নির্বাহী অফিসার আছিয়া খাতুন বলেন ‘জনস্বাস্থ্য ও জনকল্যাণে এমন অভিযান অব্যাহত থাকবে।’

এসএস

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ManaratResponsive

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন
ksrm