s alam cement
আক্রান্ত
১০০৮০১
সুস্থ
৭৯৬৩৫
মৃত্যু
১২৬৮

পতেঙ্গায় কিশোর অপরাধ দমনে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ চায় স্থানীয়রা

0

চট্টগ্রাম নগরীর পতেঙ্গার পশ্চিম মুসলিমাবাদে হযরত আবদুল কাদের জিলানী (রা.) জামে মসজিদ কমিটির উদ্যোগে এলাকায় কিশোর গ্যাংয়ের অসামাজিক কার্যক্রমের প্রতিবাদে রোববার (৩ নভেম্বর) সকাল ১১টায় এক সভা অনুষ্ঠিত হয়।

হাজী মো. নুরুল আবছারের সভাপতিত্ব ও মসজিদ কমিটির উপদেষ্টা মো.ফোরকানের সঞ্চালনায় সভায় মুসলিমাবাদ এলাকায় ইভটিজিং ও অসামাজিক কার্যক্রমে যুক্ত কিশোর গ্যাং ও তাদের বন্ধু সংগঠন-৪ ক্লাবের কার্যক্রম বন্ধের দাবি জানানো হয়।

বক্তারা বলেন, কিশোর গ্যাং নামে পরিচিত ওই সংগঠনের অনৈতিক কর্মকাণ্ডের প্রতিবাদ করায় বাড়িওয়ালা ও এলাকাবাসীকে ফাঁসাতে গত ২৯ অক্টোবর রাতে সংগঠনের সদস্যরা নিজেদের অফিস ভাংচুর করে। সোহেলের নেতৃত্বে এলাকার সোহাগ, সাজু, সাগর এই ভাংচুর চালায়। এসময় ভাংচুরে অংশ নেন মিসবাহ, সামির, আকাশ, কামবু। সবাই ৪০ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের কৃষি বিষয়ক সম্পাদক ফরিদুল আলম এবং ৪১ নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগের সহ-সভাপতি ও পতেঙ্গা কমিউনিটি পুলিশিংয়ের সাধারণ সম্পাদক মো. মুছার অনুসারী। রাজনৈতিক ছত্রচ্ছায়ায় একের পর এক অপরাধ করে পার পেয়ে যাচ্ছে কিশোর গ্যাংয়ের সদস্যরা।

বক্তারা অবিলম্বে কিশোর গ্যাং ও তাদের সংগঠনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানান।
সভায় বক্তব্য রাখেন কমিটির সভাপতি হাজী নুরুল আলম, হাজী জাফর আহমেদ, মো. আবদুল্লাহ, বাদশা সওদাগর, মো. লোকমান, মো. আলম, মো. আবু তাহের,মো. খোকন, হাজী ইসমাইল হোসেন, জাহাঙ্গীর ড্রাইভার, মো.ইমন, মো.বোরহান, কোহিনুর আকতার, ফাতেমা বেগম প্রমুখ।

ভাংচুরের ঘটনায় গত ৩০ অক্টোবর পতেঙ্গা থানায় অভিযোগ (নং-১৯৯৬) এবং ১ নভেম্বর সাংসদ এম এ লতিফকে স্মারকলিপি প্রদান এবং র্যা ব-৭ বরাবর অভিযোগ (অভিযোগ নং-৭৮৭) করা হয়। পাশাপাশি সোমবার (৪ নভেম্বর) সিএমপি পুলিশ কমিশনার বরাবর কিশোর গ্যাংয়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ করা হয়েছে।–বিজ্ঞপ্তি

সিআর

ManaratResponsive

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm