পটিয়ায় ৫ কিলোমিটার বাইপাস সড়কের উদ্ধোধন

0

জাতীয় সংসদের হুইপ সামশুল হক চৌধুরী বলেছেন, বাইপাস সড়ক চালুর ফলে পটিয়ায় আর কোন যানজট থাকবে না। এ বাইপাস পটিয়াকে আধুনিক রূপ পেতে সহায়ক হবে। পটিয়ায় মূল শহরে যানজট থেকে মুক্তি পাবে লোকজন। সড়কটি দক্ষিণ চট্টগ্রামের যাত্রীদের ভোগান্তি থেকে মুক্তি দেবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দুই বছরের মধ্যে সড়কটি নির্মাণ কাজ সম্পন্ন করার নির্দেশ দিয়েছেন। তার নির্দেশ মতে দুই বছরের মধ্যেই সড়কটি নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হয়েছে।

ঈদ উপলক্ষে পটিয়াসহ দক্ষিণ চট্টগ্রামবাসীর জন্য খুলে দেয়া হয়েছে পটিয়ার বাইপাস সড়ক। শনিবার সকাল এগারোটায় বাইপাসের ইন্দ্রপুল পয়েন্টে আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের পর সড়কটি খুলে দেন হুইপ সামশুল হক।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান মোতাহেরুল ইসলাম চৌধুরী, পটিয়া পৌরসভার মেয়র অধ্যাপক হারুনুর রশিদ, উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আ ক ম সামশুজ্জমান চৌধুরী, দোহাজারী সড়ক বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী সুমন সিংহ, উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী শাখাওয়াত হোসেন, সহকারী কমিশনার ভূমি সাব্বির রহমান সানি, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক প্রদীপ দাশ, দক্ষিণ জেলা যুবলীগ সভাপতি আ ম ম টিপু সুলতান চৌধুরী, উপজেলা পরিষদের নারী ভাইস চেয়ারম্যান মাজেদা বেগম শিরু, জেলা পরিবষদ সদস্য দেবব্রত দাশ দেবু, জেলা আওয়ামী লীগ নেতা বিজন চক্রবর্তী, রাশেদ মনোয়ার, কাউন্সিলর রুপক সেন, পটিয়া থানার ওসি বোরহান উদ্দিন, টিআই মোহাম্মদ বশির, উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা আবদুল খালেক, চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সৈয়দ, লবণ মিল মালিক সমিতির সভাপতি ফজলুল হক আল্লাইসহ বিভিন্ন শ্রেণি পেশার নেতৃবৃন্দ।

পটিয়ায় ৫ কিলোমিটার বাইপাস সড়কের উদ্ধোধন 1

সড়ক ও জনপদ বিভাগ (সওজ) সূত্রে জানা গেছে, ২০০৮ সালে পটিয়া বাইপাস সড়কের জন্য জমি অধিগ্রহণ সম্পন্ন হয়। ২০১৬ সালের নভেম্বর মাসে এ সড়কের কাজ শুরু হয়। প্রকল্প বাস্তবায়নে ব্যয় হয়েছে ৯০ কোটি ৫০ লাখ টাকা।

জানা যায়, ২০০৮ সালে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে সড়ক ও জনপদ বিভাগ পটিয়া মনসার টেক থেকে দোহাজারী সাঙ্গু সেতু সড়ক উন্নয়ন প্রকল্প গ্রহণ করে। প্রকল্পে পটিয়া বাইপাস সড়ক নির্মাণ প্রকল্পটিও অন্তর্ভুক্ত ছিল। কার্যাদেশ দেওয়া হয় ইসলাম ট্রেডিং কনসোর্টিয়াম লিমিটেড (আইটিসিএল) নামে একটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানকে। পটিয়া ইন্দ্রপুল থেকে গিরিশ চৌধুরী বাজার পর্যন্ত ৫ কিলোমিটার পটিয়া বাইপাস সড়ক নির্মাণ প্রকল্পটিও সড়ক উন্নয়ন প্রকল্পের সঙ্গে অন্তর্ভুক্ত ছিল। কিন্তু তা পরবর্তীতে অদৃশ্য কারণে বন্ধ যায়।

স্থানীয়রা বলেছেন, কক্সবাজার ও বান্দরবানসহ দক্ষিণ চট্টগ্রামের ১০ রুটে চলাচলকারী যানবাহনগুলো যানজটে পড়ছে প্রতিদিনি। পটিয়া পৌর সদর অতিক্রম করতেই আধা ঘণ্টার বেশি সময় লাগছে। বাইপাস সড়কে পুরোদমে যান চলাচল শুরু হয়েছে । ফলে ভোগান্তি কমবে।

দোহাজারী সড়ক ও জনপদ বিভাগ পটিয়া উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী সাহাদাত হোসেন জানান, পটিয়া বাইপাস সড়কটির শত ভাগ কাজ শেষ হয়েছে। ৫ কিলোমিটার সড়কটির ৮ সংযোগ স্থানে মানুষের নিরাপদ পারাপারের জন্য গতিরোধকসহ সড়কের দুইপাশ উঁচু করে দেয়া হয়েছে। এতে সর্বমোট ব্যয় হচ্ছে ৯০ কোটি ৫০ লক্ষ টাকা।

এসএস

Loading...
আরও পড়ুন