নৌকার বিপক্ষে গিয়ে পদ হারালেন রাঙামাটির ৩১ নেতা

0

ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে দলীয় চেয়ারম্যান প্রার্থীর বিরুদ্ধে গিয়ে দল থেকে বহিষ্কার হয়েছেন রাঙামাটির ৩১ নেতা।

শনিবার (৬ ফেব্রুয়ারি) লংগদু উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বাবুল দাশ বাবু এবং বাঘাইছড়ি উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. গিয়াস আল মামুন স্বাক্ষরিত পৃথক বিজ্ঞপ্তিতে তাদের বহিষ্কার করা হয়।

বহিষ্কৃতদের মধ্যে লংগদুর ৯ জন এবং বাঘাইছড়ির ২২ জন। এরা দুই উপজেলায় আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগের বিভিন্ন পদে ছিলেন।

লংগদু উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বাবুল দাশ বাবু বলেন, শৃঙ্খলাভঙ্গ এবং দলীয় প্রার্থীর বিপক্ষে অবস্থান নেওয়ায় তাদের বহিষ্কার করা হয়েছে। এদের স্থায়ী বহিষ্কারের জন্য জেলায় চিঠি পাঠানো হয়েছে।

এদিকে বাঘাইছড়ি উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক গিয়াস আল মামুন বলেন, সব সংগঠনের সঙ্গে বসে এদের বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

Yakub Group

বহিষ্কৃতরা হলেন
লংগদু উপজেলায় বহিষ্কৃতরা হলেন—উপজেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা নুর মোহাম্মদ, সদস্য মো. গাউছ আলম ও রফিকউদ্দিন।

ভাসাইন্যাদম ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি জিয়াবুল হক ও ৪ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. আছর আলী।

মাইনী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সদস্য বিল্লাল হোসেন, মনছুর উদ্দিন ভূইয়া, কুতুব উদ্দিন ও সাংগঠনিক সম্পাদক মো. নুরুচ্ছফা।

বাঘাইছড়ি উপজেলায় বহিষ্কৃতরা হলেন—উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ফয়েজ আহমেদ।

আমতলী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা সুলতান আহমেদ ও মমিনুল ইসলাম; সহ-সভাপতি মজিবুর রহমান, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক আব্দুর সোবহান, ধর্মবিষয়ক সম্পাদক আব্দুর রহমান, আইনবিষয়ক সম্পাদক কবির হোসেন, সদস্য শফিউল্লাহ কারিগর, আব্দুল মালেক এবং বাবর আলী।

আমতলী ইউনিয়ন শ্রমিক লীগের সভাপতি জাহেদ আলী, সাধারণ সম্পাদক মো. আব্দুল্লাহ এবং যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আরিফুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক রফিক মিয়া, সদস্য আসাদ মিয়া ও সদস্য আমিরুল ইসলাম।

আমতলী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি আব্দুল্লাহ আল মাসুদ ও সহ-সভাপতি মনির হোসেন।

বাঘাইছড়ির খেদারমারা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মো. ওসমান এবং ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি রিমন দে, দপ্তর সম্পাদক ইমরান হোসেন ও সদস্য সাইফুল ইসলাম।

এদের মধ্যে সুলতান আহমেদ ও মুজিবর রহমান বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করছেন।

রাঙামাটি জেলা লংগদু, জুরাছড়ি ও বাঘাইছড়ি উপজেলার ১৯ ইউপিতে আগামীকাল রোববার (৭ ফেব্রুয়ারি)। এরমধ্যে রয়েছে বাঘাইছড়ি উপজেলায় ৮টি, লংগদু উপজেলায় ৭টি এবং জুরাছড়ি উপজেলায় ৪টি।

এর আগে নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বাঘাইছড়ি উপজেলার সাজেক ভ্যালিতে অবস্থিত সব ধরনের কটেজ-রিসোর্ট ৬ ও ৭ ফেব্রুয়ারি দুইদিন বন্ধের নির্দেশনা দেয় উপজেলা প্রশাসন।

ডিজে

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm