আক্রান্ত
১১৪৯০
সুস্থ
১৩৫৫
মৃত্যু
২১৬

নির্দেশনা মানেননি বোয়ালখালীর বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তারা

ঘূর্ণিঝড় মোকাবেলা

0
high flow nasal cannula – mobile

ঘূর্ণিঝড় মোকাবেলায় সরকারি কর্মকর্তাদের ছুটি বাতিল করে স্ব স্ব কর্মস্থলে উপস্থিত থাকার নির্দেশনা থাকা সত্ত্বেও কর্মস্থলে ছিলেন না বোয়ালখালীর বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তারা।

দুর্যোগ মোকাবেলায় জেলা প্রশাসনের এক আদেশে বাতিল করা হয় সরকারি দপ্তরসমূহের সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীর ছুটি। তবে বোয়ালখালী উপজেলার চিত্র ছিল ভিন্ন। শুক্রবার ও শনিবার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) একরামুল সিদ্দীক, উপজেলা প্রকল্প কর্মকর্তা সুপ্তশ্রী সাহা ও প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সদানন্দ পাল ছাড়া কোনো কর্মকর্তাকে কর্মস্থলে উপস্থিত থাকতে দেখা যায়নি। কার্যালয়গুলো ছিলো তালাবদ্ধ।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ঘূর্ণিঝড় মোকাবেলায় সার্বিক প্রস্তুতিবিষয়ক সভা উপজেলা নির্বাহী কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়। এতে ঘূর্ণিঝড় ফণির দুর্যোগ মোকাবেলায় পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ ও সার্বক্ষণিক যোগাযোগের জন্য খোলা হয় কন্ট্রোল রুম।
কিন্তু শুক্রবার ও শনিবার সকাল থেকে কর্মস্থলে কোন কর্মকর্তাকে উপস্থিত থাকতে দেখা যায়নি।

দুর্যোগকালীন সময়ে বোয়ালখালী উপজেলার দায়িত্বপ্রাপ্ত জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলী অধিদপ্তরের উপ-সহকারী প্রকৌশলী সাইদ মাহমুদের সাথে মুঠোফেনো যোগাযোগ করা হলে তাকে কর্মস্থলে পাওয়া যায়নি। তিনি তার দেশের বাড়ি মিরাসরাইয়ে রয়েছেন বলে জানান। উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা মো. দেলোয়র হোসেন চট্টগ্রাম নগরের বাসায় রয়েছেন বলে জানান।
উপজেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডা. সুলতান মাহমুদ আখন্দ ও পল্লী উন্নয়ন কর্মকর্তা মো. ইউনুচ পাটোয়ারিকে একাধিকবার ফোন করা হলেও তারা ফোন ধরেননি। এছাড়া পরিসংখ্যান, উপজেলা প্রকৌশলী এলজিইডি, উপজেলা রিসোর্স সেন্টারের কর্মকর্তা, উপজেলা প্রকল্প কর্মকর্তাদের সাথে যোগাযোগ করা হলে তারা কর্মস্থলে উপস্থিত রয়েছেন বলে দাবি করলেও তারা বাসায় ছিলেন বলে জানা গেছে।

বোয়ালখালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত ) একরামুল সিদ্দীক বলেন, আমি সারাদিনই দৌড়ের মধ্যে আছি। সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের ছুটি বাতিল করা হয়েছে। সবাইকে বিভিন্ন ইউনিয়নের দায়িত্ব ভাগ করে দেয়া হয়েছে। এখন কেন তারা উপস্থিত নেই সেটা খোঁজ নিয়ে জানান।

উপজেলা দুর্যোগ কমিটির সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান নুরুল আলম বলেন, কমিটির মাধ্যমে উপজেলায় ১০জন কর্মকর্তাকে বিভিন্ন এলাকার দায়িত্ব ভাগ করে দেয়া হয়েছে। কে কী দায়িত্ব পালন করেছেন সেটা ইউএনও গণমাধ্যম কর্মীদের পরে জানিয়ে দেবেন।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

Manarat

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন
ksrm