নিখোঁজ শিপিং এজেন্সির মালিকের মরদেহ উদ্ধার শাহ আমানত সেতুর নিচে

চট্টগ্রামে নিখোঁজ শিপিং এজেন্সির মালিকের মরদেহ মিললো একদিন পরে।

শনিবার (১ অক্টোবর) সকাল ৮টার দিকে কর্ণফুলী নদীর শাহ আমানত সেতুর নিচ থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করেছে সদরঘাট নৌ-থানার পুলিশ।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সদরঘাট নৌ-থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. একরাম উল্লাহ।

তিনি চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে বলেন, ‌‘সকাল ৮টার দিকে মরদেহ ভাসতে দেখে খবর দেয় স্থানীয়রা। পরে তাৎক্ষনিক ঘটনাস্থলে গিয়ে শাহ আমানত সেতুর নিচ থেকে ভাসমান অবস্থায় মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এরপর পোস্ট মর্টেমের জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করি। মেডিকেলের প্রক্রিয়া শেষে মরদেহ পরিবারের হস্তাস্তর করা হবে। এ ঘটনায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা করা হয়।’

নিহত বাহারুল আলম ভোলার দৌলতখান এলাকার মৃত বেলায়েত হোসেন হাওলাদারের ছেলে ও মেসার্স বিজয় শিপিং অ্যান্ড ট্রেডিং এজেন্সির মালিক। তিনি চট্টগ্রাম বন্দর লাইটারেজ ঠিকাদার সমিতির কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য। দীর্ঘদিন ধরে কর্ণফুলী উপজেলার ইছানগর এলাকায় পরিবার নিয়ে বসবাস করছিলেন তিনি।

এর আগে বৃহস্পতিবার (২৯ সেপ্টেম্বর) রাত ২টায় ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে বাড়িতে ফেরার জন্য সদরঘাটে গিয়ে সাম্পানে ওঠার সময় এ দুর্ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে নদীতে তল্লাশি শুরু করে নৌ-পুলিশ।

Yakub Group

গতকাল শুক্রবার (৩০ সেপ্টেম্বর) সকাল থেকে ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরাও তল্লাশি চালায়।

এমএ/এমএফও/এমএহক

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ksrm