না মানলে ‘মানানোর ব্যবস্থা’ আছে, হুমকি নওফেলের

0

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন (চসিক) নির্বাচনে সাধারণ ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীরা নির্বাচন থেকে সরে যাবেন বলে কথা দিয়েছেন কেন্দ্রীয় নেতাদের কাছে— এমনটিই জানিয়েছেন চসিক নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রধান সমন্বয়ক ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন। এই সিদ্ধান্ত কেউ না মানলে তাকে ‘মানানোর ব্যবস্থা’ আছে বলে হুমকিও দিয়েছেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল।

বৃহস্পতিবার (১৯ মার্চ) বিকেলে চট্টগ্রাম পেনিনসুলা হোটেলে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তারা।

ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন বলেন, দলীয় সমর্থন না পেয়ে যারা নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন তাদের আমরা বুঝিয়েছি। তারা নির্বাচন থেকে সরে যেতে সম্মত হয়েছেন। এখন যেহেতু প্রার্থিতা প্রত্যাহারের সুযোগ নেই, তাই তারা দলীয় সমর্থিত প্রার্থীকে সমর্থন দেবেন বলে জানিয়েছেন। সব প্রার্থী প্রচার-প্রচারণা থেকে নিজেকে বিরত রাখবেন। দলীয় সমর্থিত প্রার্থীর পক্ষে কাজ করবেন।

কয়জন বিদ্রোহী প্রার্থী নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়াবে— এমন প্রশ্নের জবাবে নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেন, ‘আমরা সকলকে ডেকেছি। সবাইকে বুঝিয়েছি। সবাই এগ্রি করছে। মোশাররফ ভাইয়ের সিদ্ধান্তের বাইরে কেউ নাই।’

সকলে এই সিদ্ধান্ত মানবে কিনা— সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে শিক্ষা উপমন্ত্রী নওফেল বলেন, ‘কেউ যদি আপনাদেরকে বলে যে আমি এখনও রয়ে গেছি তখন সেটার বিরুদ্ধে আমরা অবশ্যই ব্যবস্থা নেবো। এর বাইরেও যদি আপনাদেরকে কেউ বলে, না আমি ওখানে যা বলছি তা আমি এখন মানি না। তখন সেটা মানানোর ব্যবস্থাও আমাদের কাছে আছে।’

এআরটি/সিপি

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন