s alam cement
আক্রান্ত
১০২১১০
সুস্থ
৮৬৮৫৬
মৃত্যু
১৩১৩

নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জে চট্টগ্রামের বিজয়ী ‘সোলার স্পেক’

0

নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ-২০২১ বাংলাদেশের বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করা হল। বাংলাদেশের নয়টি শহরে (ঢাকা, চট্টগ্রাম, সিলেট, রাজশাহী, রংপুর, বরিশাল, খুলনা, কুমিল্লা ও ময়মনসিংহে) ভার্চুয়ালি এই প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়।

মঙ্গলবার (৫ অক্টোবর) ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে অনুষ্ঠিত হওয়া সমাপনী অনুষ্ঠানে দেশের নয়টি শহর থেকে তিনটি করে মোট ২৭টি প্রকল্পকে পুরস্কৃত করা হয়।

সপ্তমবারের মতো বাংলাদেশে আয়োজিত হচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা আয়োজিত বিশ্বের সর্ববৃহৎ হ্যাকাথন প্রতিযোগিতা নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ ২০২১। বিশ্বের শতাধিক নগরীর মতো আন্তর্জাতিকভাবে বিশ্বের ৩২১টি শহরে একযোগে স্পেস অ্যাপস চ্যালঞ্জে হ্যাকাথন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এই প্রতিযোগিতার আঞ্চলিক পর্যায়ের বিজয়ীরা চূড়ান্ত প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের সুযোগ পাবে।

বাংলাদেশ থেকে আট শতাধিক প্রকল্প এবার নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ প্রতিযোগিতায় জমা দেয়। যার ১২৫টি প্রকল্প নির্বাচিত হয়েছে, যারা ভার্চুয়ালি গত ১ থেকে ২ অক্টোবর ৪৮ ঘণ্টার হ্যাকাথনে অংশ নেন। বাংলাদেশের নয়টি শহর থেকে তিনটি করে মোট ২৭টি প্রকল্পকে এবার পুরস্কৃত করা হয়।

নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জে চট্টগ্রাম অঞ্চল থেকে সেকেন্ড রানার আপ ‘স্পেস ক্রপ’, রানার আপ ‘ক্যালেস্টিয়াল সিক্স’ এবং বিজয়ী দল ‘সোলার স্পেক’।

বরিশাল অঞ্চল থেকে সেকেন্ড রানার আপ ‘ইকো ইউনিকর্ন’, রানার আপ ‘স্পেস আই’ এবং বিজয়ী দল ‘প্রেহিম’। কুমিল্লা অঞ্চল থেকে সেকেন্ড রানার আপ ‘ডায়নামো ওয়ারিয়র’, রানার আপ ‘গ্রিন এক্স’ এবং বিজয়ী দল ‘টেক্সজেন’।

খুলনা অঞ্চল থেকে সেকেন্ড রানার আপ ‘নাসা ইয়ং এক্সপ্লোরার’, রানার আপ ‘ফ্লাই হাই’ এবং বিজয়ী দল ‘মহাকাশ’। ময়মনসিংহ অঞ্চল থেকে সেকেন্ড রানার আপ ‘টেক হাব’, রানার আপ ‘ইন্সপেশন ওকে’ এবং বিজয়ী দল ‘সোলারিস’।

রাজশাহী অঞ্চল থেকে সেকেন্ড রানার আপ ‘ইন্টার কানেক্ট’, রানার আপ ‘স্পেস আই’ এবং বিজয়ী দল ‘থ্রি থার্টিন’। রংপুর অঞ্চল থেকে সেকেন্ড রানার আপ ‘টিম পার্সিভারেন্স’, রানার আপ ‘শুটাউস্টার্স’ এবং বিজয়ী দল ‘টিম শকওয়েব’।

সিলেট অঞ্চল থেকে সেকেন্ড রানার আপ ‘আর্টিবটস’, রানার আপ ‘সাস্ট এস্পইর’ এবং বিজয়ী দল ‘এমআইএসটি মহাশুন্যের অভিষারী’। ঢাকা অঞ্চল থেকে সেকেন্ড রানার আপ ‘লুমিনাল ক্যালিবার’, রানার আপ ‘লুবডক’ এবং বিজয়ী দল ‘বুয়েট জেনিথ’।

সমাপনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের সদস্য প্রফেসর ড. মো. সাজ্জাদ হোসেন, বেসিসের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ফারহানা এ রহমান এবং নাসা স্পেস চ্যালেঞ্জের উপদেষ্টা, বিচারক, মেন্টরসহ সহস্রাধিক প্রতিযোগী।

বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস (বেসিস)-এর তত্ত্বাবধানে এবং বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন, আইসিটি বিজনেস প্রমোশন কাউন্সিল ও বেসিস স্টুডেন্টস ফোরামের সহায়তায় শুরু হয় নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ-২০২১।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm