নতুন রেকর্ড, চট্টগ্রাম একদিনে এতো মৃত্যু আর দেখেনি, শেষ ২৪ ঘন্টায় ১৫

১৬ মাসে করোনার মৃত্যু ৮৫৬, উপজেলাতেই ৩৩০

0

চট্টগ্রামে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় প্রাণ হারিয়েছেন ১৫ জন। একদিনে এতো মৃত্যু চট্টগ্রামে আর দেখা যায়নি। এছাড়া এই ২৪ ঘন্টায় নতুন করে আরও ৯২৫ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের জীবাণু পাওয়া গেছে। যাদের মধ্যে ৫৫২ জন নগরের এবং ৩৭২ জন বিভিন্ন উপজেলার বাসিন্দা। অন্যদিকে করোনায় মারা যাওয়া ১৫ জনের ৫ জন মহানগরের, বাকি ১০ জন উপজেলার বাসিন্দা।

১১ টি ল্যাব ও বিভিন্ন উপজেলা এন্টিজেন টেস্টসহ মোট ২৫৩৭ জনের নমুনা পরীক্ষায় করোনা পজিটিভ শনাক্ত হওয়া ৯২৫ জন নিয়ে চট্টগ্রামে শনাক্তের সংখ্যা গিয়ে দাঁড়াল ৭২ হাজার ৫৯২ জনে। এদের মধ্যে নগরের ৫৫ হাজার ৮২ জন এবং ১৭ হাজার ৫১০ জন বিভিন্ন উপজেলার বাসিন্দা। অন্যদিকে করোনায় মারা যাওয়া আজকের ১৫ জনসহ মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৮৫৬ জনে। এদের মধ্যে ৫২৬ জন নগরের এবং ৩৩০ জন উপজেলার বাসিন্দা।

মঙ্গলবার (২০ জুলাই) মধ্যরাতে চট্টগ্রাম সিভিল সার্জনের প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা যায়।

ল্যাবভিত্তিক রিপোর্টে দেখা যায়, ফৌজদারহাটের বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজেস ল্যাবে (বিআইটিআইডি) ৬০২ জনের নমুনা পরীক্ষায় চট্টগ্রাম নগরের ৯৯ ও উপজেলার ৪৭ জন জীবাণুবাহক পাওয়া গেছে। চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ ল্যাবে ১৭৭ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হলে নগরের ৫৫ ও উপজেলার ৭ জনের শরীরে জীবাণুর উপস্থিতি চিহ্নিত হয়।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ল্যাবে ২৮৯ জনের নমুনা পরীক্ষায় নগরের ৭৪ জন ও বিভিন্ন উপজেলার ৫৯ জন মানুষ করোনা পজিটিভ শনাক্ত হন।

Yakub Group

চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি অ্যান্ড অ্যানিম্যাল সায়েন্সেস বিশ্ববিদ্যালয় (সিভাসু) ল্যাবে ২৬৯ জনের নমুনা পরীক্ষায় নগরের ৫৩ জন ও বিভিন্ন উপজেলার ৬০ জন বাসিন্দা করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছেন।

এদিকে বেসরকারি ক্লিনিক্যাল ল্যাবরেটরির মধ্যে ইম্পেরিয়াল হাসপাতাল ল্যাবে ১৫২ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৭২ জনের করোনা পজিটিভ আসে। এদের মধ্যে ৬৬ জন নগরের এবং ৬ জন বিভিন্ন উপজেলার। আগ্রাবাদের মা ও শিশু হাসপাতালে ৬১ জনের নমুনা পরীক্ষায় নগরে ২৯ জন ও উপজেলার ৪ জন করোনা পজিটিভ শনাক্ত হন। মেডিকেল সেন্টার হাসপাতালে ৪০ নমুনা পরীক্ষায় ১৪ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়। যাদের ১৩ জন নগরের, ১ জন উপজলার। ইপিক হেলথ কেয়ারে ১৫১ নমুনা পরীক্ষায় নগরের ৬১ জন আর উপজেলার ১৩ জনের শরীরে করোনার জীবাণু পাওয়া যায়।

অন্যদিকে চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালের আরটিআরএল ল্যাবে ৩১ নমুনা পরীক্ষা নগরের ১৮ জনের শরীরে করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি মিলেছে।

নমুনা সংগ্রহের পরপরই ফলাফল প্রদানকারী এন্টিজেন টেস্টে ৭৩৪ জনের মধ্যে নগরে ৭১ ও উপজেলাগুলোতে ১৬৯ জন জীবাণুবাহক বলে জানানো হয়।

কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ ল্যাবে ৮ নমুনা পরীক্ষা ২ জন করোনা পজিটিভ শনাক্ত হন। তারা দুজনই লোহাগড়ার।

চট্টগ্রামের উপজেলাগুলোর মধ্যে দক্ষিণের বোয়ালখালী উপজেলায় গত কয়েকদিনের তুলনায় আজ করোনা শনাক্তের সংখ্যা কিছুটা কম হলেও পটিয়ায় আগের মত শনাক্তের গ্রাফ উর্ধ্বমুখী। গত ২৪ ঘণ্টায় বোয়ালখালীতে ৭ জনের দেহে করোনার জীবাণু পাওয়া যায়। পটিয়া করোনা পজিটিভ মিলেছে ২৯ জনের দেহে। এছাড়া দক্ষিণের অন্যান্য উপজেলার মধ্যে লোহাগাড়ায় ১৭ জন, সাতকানিয়া ৩ ও বাঁশখালীতে ১০ জন করে, চন্দনাইশে ১৫ জন এবং আনোয়ারায় ২৫ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়।

উত্তরের উপজেলাগুলোতে শনাক্তের সংখ্যা আজ বেড়েছে আশংকাজনকভাবে। এর মধ্যে রাউজানে সর্বোচ্চ ৮৪ জন করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছেন আজ। এর পরেই রয়েছে হাটহাজারী, সেখানে করোনা মিলেছে ৬৮ জনের শরীরে। এছাড়া, ফটিকছড়িতে ৪৭, রাঙ্গুনিয়ায় ২৪, সীতাকুণ্ডে ১৭ জন ও সন্দ্বীপে ১৬ জনের দেহে মিলে ভাইরাসটির উপস্থিতি।

এআরটি/সিপি

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ksrm