দ্রব্যমূল্য বাড়তেই ৪ হাজার কর্মীর বেতনও বেড়ে গেল কেএসআরএমে

মাসে পৌনে ১ কোটি টাকা বাড়তি যাবে

মুদ্রাস্ফীতি ও দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতিতে নিম্নআয়ের কর্মীদের যখন দিশেহারা অবস্থা, তখন দ্বিতীয় দফায় আবার বেতন বাড়িয়ে দিল কেএসআরএম। এর আগে গত জানুয়ারিতেও প্রতিষ্ঠানটিতে কর্মরত সকল স্তরের কর্মীর বেতন এক দফা বাড়িয়েছিল ইস্পাতশিল্পে নেতৃত্ব দেওয়া এই প্রতিষ্ঠানটি। এর কর্তৃপক্ষ বলছে, কর্মীদের আয় ও ব্যয়ের পার্থক্য কমানোর জন্যই উদ্যোগটি নেওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৫ আগস্ট) দ্বিতীয়বার বেতন বাড়ানোর ঘোষণা দেয় কেএসআরএম। যদিও এই ঘোষণা কার্যকর হবে ১ আগস্ট থেকেই।

জানা গেছে, ২৫ হাজারের নিচে বেতন পান— এমন প্রায় ৪ হাজার কর্মী এ সুবিধা পাচ্ছেন। এতে প্রতিমাসে কেএসআরএমের বাড়তি খরচ হবে প্রায় কোটি টাকা। এ ঘোষণায় কর্মীদের আর্থিক টানাপোড়েনে কিছুটা হলেও স্বস্তি এবং আনন্দ বিরাজ করবে— এমন আশা করছে কর্তৃপক্ষ।

কেএসআরএমের উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক শাহরিয়ার জাহান রাহাত এ প্রসঙ্গে বলেন, বর্তমান বাজার পরিস্থিতিতে স্বল্প আয়ের মানুষ বেশ বেকায়দায়। হঠাৎ নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের দাম বেড়ে যাওয়ায় জনজীবনে প্রভাব পড়েছে। অনেকের পক্ষে পরিস্থিতি সামলে চলা মুশকিল হয়ে পড়েছে।’

তিনি বলেন, ‘যদিও সরকার নানামুখী পদক্ষেপ নিয়েছে পরিস্থিতি সামলে নেওয়ার। পরিস্থিতি সামলে নিতে সরকার যেমন অনেক পদক্ষেপ নিয়েছে, আমাদেরও যার যার অবস্থান থেকে এগিয়ে আসবে হবে। নিতে হবে পদক্ষেপ। কেএসআরএম সেই দায়িত্ববোধ থেকে কর্মীদের পাশে দাঁড়িয়েছে।’

Yakub Group

কেএসআরএম স্টিল প্ল্যান্টের কর্মকর্তা রাশেদুল হক পিন্টু বলেন, প্রতিষ্ঠান হিসেবে কেএসআরএমের কর্মপরিবেশ অত্যস্ত ভালো ও কর্মীবান্ধব। যেকোনো বিপর্যয়, দুর্যোগ ও দুঃসময়ে কেএসআরএমের মালিক পক্ষ ভরসা হয়ে আমাদের পাশে থাকে। করোনা পরবর্তী বর্তমান দ্রব্যমূল্যের উর্ধ্বগতির এই পরিস্থিতিতে বেতন বাড়নোর ঘোষণা আমাদের জন্য আনন্দের।

সিপি

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ksrm