আক্রান্ত
১৮৬৯৫
সুস্থ
১৫০৬২
মৃত্যু
২৯০

দেশের দ্রুততম মানব-মানবী নৌবাহিনীর ইসমাইল ও শিরিন

চট্টগ্রামে জাতীয় অ্যাথলেটিকস প্রতিযোগিতা শুরু

0

দ্বিতীয়বারের মতো দেশের দ্রুততম মানব হলেন নৌবাহিনীর ইসমাইল হোসেন। একইদিনে টানা দশমবারের মতো দেশের দ্রুততম মানবী হলেন শিরিন আক্তার, তিনিও নৌবাহিনীর। তবে তাদের এবারের প্রতিযোগিতা ঘাসের মাঠে অনুষ্ঠিত হওয়ার কারনে জাতীয় রেকর্ড হিসেবে তাদের এ অর্জন লিপিবদ্ধ করা হবে না।

বাংলাদেশ অ্যাথলেটিকস ফেডারেশনের ব্যবস্থাপনায়, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের পৃষ্ঠপোষকতায় ও চট্টগ্রাম জেলা ক্রীড়া সংস্থার সহযোগিতায় মুজিববর্ষ উপলক্ষ্যে ৪৩তম জাতীয় অ্যাথলেটিকস প্রতিযোগিতা বৃহস্পতিবার (১৬ জানুয়ারি) চট্টগ্রামের এম এ আজিজ স্টেডিয়ামে শুরু হয়েছে। উদ্বোধনী দিনে সবচেয়ে আকর্ষণীয় ছিল ১০০ মিটার স্প্রিন্ট। তাতে মাত্র ১০ দশমিক ৪০ সেকেন্ড সময় নিয়ে ১০০ মিটার অতিক্রম করে সোনা জেতেন ইসমাইল হোসেন। আর ১২ দশমিক ১০ সেকেন্ড সময় নিয়ে মেয়েদের ১০০ মিটার স্প্রিন্টে সোনা জিতেছেন পুরনো মুখ শিরিন আক্তার।

অন্যান্য প্রতিযোগীকে পেছনে ফেলে দেশের দ্রুততম মানব হওয়ার পথে নৌবাহিনীর ইসমাইল হোসেন। ছবি: আজীম অনন
অন্যান্য প্রতিযোগীকে পেছনে ফেলে দেশের দ্রুততম মানব হওয়ার পথে নৌবাহিনীর ইসমাইল হোসেন। ছবি: আজীম অনন

টার্ফবিহীন অচেনা মাঠে ১০০ মিটার স্প্রিন্টে বর্তমান দ্রুততম মানব হাসান মিয়াকে পেছনে ফেলে মুকুটটি নিজের করে নেন নৌবাহিনীর অ্যাথলেট ইসমাইল হোসেন। ২০১৯ সালের ৩০ আগস্ট জাতীয় অ্যাথলেটিকসে হাসান মিয়া নিয়েছিলেন ১০ দশমিক ৬১ সেকেন্ড।

প্রথম দিনে মোট ১0টি ইভেন্ট সম্পূন্ন হয়েছে ৬ টি স্বর্ণ, ৪ টি রৌপ্য এবং ৪ টি ব্রোঞ্জ সহ মোট ১৪টি পদক নিয়ে বাংলাদেশ নৌবাহিনী পদক তালিকার শীর্ষে অবস্থান করছে। ৩ টি স্বর্ণ, ৫ টি রৌপ্য এবং ৪ টি ব্রোঞ্জ সহ মোট ১২ টি পদক নিয়ে দ্বিতীয় অবস্থানে আছে বাংলাদেশ সেনাবিাহিনী এবং ১ টি স্বর্ণ ও ১ টি রৌপ্য মোট ২টি পদকে তৃতীয় অবস্থানে আছেন বাংলাদেশ আনসার ও ভিডিপি।

টানা দশমবারের মতো দেশের দ্রুততম মানব হওয়ার পথে দৌঁড়াচ্ছেন নৌবাহিনীর শিরিন আক্তার। ছবি: আজীম অনন
টানা দশমবারের মতো দেশের দ্রুততম মানব হওয়ার পথে দৌঁড়াচ্ছেন নৌবাহিনীর শিরিন আক্তার। ছবি: আজীম অনন

তিনদিনব্যাপী প্রতিযোগিতায় ৩৬টি ইভেন্টের জন্য ৩৩টি দলের ৩৭৫জন এ্যাথলেট অংশগ্রহন করছেন এর মধ্যে পুরুষ এ্যাথলেট ২৮৭জন মহিলা এ্যাথলেট ৮৮ জন। প্রতিযোগিতা পরিচালনার জন্য দেশের বরেণ্য ক্রীড়া সংগঠক, সাবেক জাতীয় খেলোয়াড়, জাতীয় ও আন্তর্জাতিক মানের পুরস্কারপ্রাপ্ত প্রায় ১৫০জন ক্রীড়া ব্যক্তিত্ব যারা জাজ/বিচারক হিসেবে কাজ করেছেন।

৪৩তম জাতীয় অ্যাথলেটিকস প্রতিযোগিতার কো-চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হক জানান, ঢাকার বাইরে এমন আসর স্থানীয় পর্যায়ের অ্যাথলেটিকসকে চাঙা করবে।

প্রসঙ্গত, দীর্ঘ ১৪ বছর পর এবার চট্টগ্রামে আবারও বসেছে অ্যাথলেটিকসের জাতীয় আসর। বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে ৪৩তম এ আসরের নাম রাখা হয়েছে ‘মুজিববর্ষ ২০২০ জাতীয় অ্যাথলেটিকস প্রতিযোগিতা’। এর আগে সর্বশেষ ২০০৫ সালে চট্টগ্রামে বসেছিল খেলাধুলার সবচেয়ে বড় এ ইভেন্ট।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ManaratResponsive

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন
ksrm