দুর্গম পাহাড়ের হাজারো মানুষের জন্য খাবার পানির ব্যবস্থা করলো সেনাবাহিনী

0

চৈত্র-বৈশাখ মাসে পাহাড়ে দেখা দেয় খরা। শুকিয়ে যায় পাহাড়ি ছড়াগুলো। পানির স্তর নিচে নেমে যাওয়ায় টিউবওয়েলেও উঠে না পানি। এতে সবচেয়ে বেশি সংকট দেখা দেয় সুপেয় পানির।

এই পরিস্থিতিতে খাগড়াছড়ি মাটিরাঙ্গা উপজেলার আলুটিলায় চারটি গ্রামে স্থায়ীভাবে সুপেয় পানির ব্যবস্থা করেছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী।

আলুটিলা পূর্নবাসন এলাকায় ১০ হাজার লিটার ধারণক্ষমতা পানির হাউজ তৈরি করা হয়েছে। এর ফলে চারটি গ্রামের প্রায় ১৬০ পরিবার পাবে নিরাপদ পানি।

শনিবার (৩০ এপ্রিল) সকাল ১০টায় সেনাবাহিনীর খাগড়াছড়ি রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম এ পানির হাউজ উদ্বোধন করেন।

এই হাউজে পাম্পের মাধ্যমে ৫০০ মিটার উঁচুতে পাইপের মাধ্যমে পানি উত্তোলন করা হবে।

এ বিষয়ে ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম বলেন, পার্বত্য অঞ্চলে মানুষের জীবনযাত্রার মান উন্নয়নের লক্ষ্যে খাগড়াছড়ি রিজিয়ন প্রতিনিয়ত জনকল্যাণমূলক কাজ করে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় এই দুর্গম গ্রামের মানুষের সুবিধার্থে পানির হাউজ নির্মাণ করে সুপেয় পানির ব্যবস্থা করা হয়েছে। সেনাবাহিনী পার্বত্য এলাকার এবং দেশের সকল মানুষের পাশে সবসময় ছিল, ভভিষ্যতেও থাকবে।’

এসময় উপস্থিত ছিলেন সেনাবাহিনীর খাগড়াছড়ি জোন কমান্ডার লে. কর্নেল সাইফুল ইসলাম, খাগড়াছড়ি রিজিয়নের স্টাফ অফিসার জিটুআই মেজর মো. জাহিদ হাসান, সদর জোনের উপ-অধিনায়ক মেজর মো. রিয়াজুল উসলাম, ক্যাপ্টেন মো. শিহাব উদ্দিন, মাটিরাঙ্গা সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হেমেন্দ্র ত্রিপুরা ও ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য শান্তিময় ত্রিপুরা।

এমএফও

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm