দু’দফা দাবিতে পটিয়া পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির কর্মচারীদের কর্মবিরতি

পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড ও পল্লী বিদ্যুৎ সমিতিকে একীভূত করে অভিন্ন চাকরিবিধি বাস্তবায়ন এবং চুক্তিভিত্তিক ও অনিয়মিত কর্মচারীদের নিয়মিতকরণের দুই দফা দাবিতে সর্বাত্মক কর্মবিরতি পালন করছেন সারাদেশের ৮০টি পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির অর্ধ লাখ কর্মকর্তা-কর্মচারী।

রোববার (৭ জুলাই) সপ্তম দিনের মতো চলছে কর্মবিরতি। ১ জুলাই সকাল থেকে সারাদেশের ন্যায় চট্টগ্রাম পটিয়ায় পল্লী বিদুৎ সমিতি-১ একযোগে কর্মবিরতি পালন শুরু হয়।

আন্দোলনকারীদের অভিযোগ, দেশের প্রত্যন্ত এলাকায় বিদ্যুৎ সরবরাহের কাজে নিয়োজিত একমাত্র প্রতিষ্ঠান পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির গ্রাহক প্রায় ১২ কোটি। সমিতির কর্মকর্তা-কর্মচারীরা নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎসেবা দিতে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ঝড়বৃষ্টিসহ প্রাকৃতিক দুর্যোগ মাথায় নিয়ে দিন-রাত সেবা দিয়ে যাচ্ছেন । কিন্তু সমিতির তদারকি প্রতিষ্ঠান পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের (বিআরইবি) দ্বৈত নীতির কারণে ন্যায্য সুযোগ-সুবিধা হতে বঞ্চিত হচ্ছেন দেশের ৮০টি পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির প্রায় ৪০ হাজার কর্মকর্তা-কর্মচারী।

একই প্রতিষ্ঠানে চাকরি করলেও পদ-পদবি, বেতন-ভাতা, বোনাসসহ পদোন্নতির ক্ষেত্রে চরম বৈষম্যের শিকার হয়ে আসছে। শুধু তাই নয়, বিআরইবির অদক্ষতা ও নিম্নমানের সামগ্রীর কারণে হয়রানির শিকার হচ্ছেন। বিতরণ লাইনে ব্যবহৃত নিম্নমানের মালামালের জন্য উত্তম গ্রাহকসেবা নিশ্চিত করা সম্ভব হয় না।

জানা গেছে, গত ৫ জুলাই সারাদেশের ৮০টি পল্লী বিদুৎ সমিতির কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সঙ্গে বিদ্যুৎ বিভাগের বৈঠক বিফলে গেছে। এর পরিপ্রেক্ষিতে সপ্তম দিনের মতো রোববার চট্টগ্রাম পল্লী বিদুৎ সমিতি-১ পটিয়ায় কর্ম বিরতি সহ সারা দেশের এক যোগে ৮০টি পল্লী বিদুৎ সমিতিতে আন্দোলন চলছে। তাদের দাবি, পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড (আরইবি) থেকে মুক্তি নিয়ে এক ও অভিন্ন সার্ভিস কোড, অনিয়মিতদের নিয়মিত চাকরি ও সকল লাইনম্যানদের ২৪ ঘন্টা কাজের বদলে আট ঘন্টা কাজের জন্য তাদের এ মুক্তির আন্দোলন।

রোববার সারাদেশের পল্লী বিদুৎ সমিতির রিডিং বইগুলো হস্তান্তর করা হয়েছে জেনারেল ম্যানেজারের নিকট।

এসময় আন্দোলনে একাত্মতা প্রকাশ করে বক্তব্য রাখেন ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার এমরান গনি, ডিজিএম রীশু কুমার ঘোষ, আবু সুফিয়ান, শ ম মিজানুর রহমান, জসিম উদ্দিন, মহিউদ্দিন, ইব্রাহীম, এজিএম দেবব্রত ভৌমিক, লাইনম্যান সোহাগ খন্দকার।

এক পর্যায়ে যশোর পল্লী বিদুৎ সমিতি-১ এর জেনারেল ম্যানেজার ইসহাক আলীর কুশপুত্তলিকা দাহ করেন আন্দোলনকারীরা।

ডিজে

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!