দুদকে অভিযোগ করে বন্দরে চাকরি পাচ্ছেন মেহেরুন

0

দুর্নীতি দমন কমিশনের গণশুনানিতে অভিযোগ করে পোষ্য কোটায় চট্টগ্রাম বন্দরে চাকরির নিশ্চয়তা পেলেন মেহেরুন নেছা মনি।

মঙ্গলবার (১২ নভেম্বর) সকালে চট্টগ্রাম বন্দর নিয়ে দুদকের গণ শুনানিকালে বন্দর চেয়ারম্যান ও সংশ্লিষ্ট প্রশাসনিক কর্মকর্তাকে এ নির্দেশ দেন দুদক কমিশনার (তদন্ত) ও গণশুনানি অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি এ এফ এম আমিনুল ইসলাম।

মেহেরুন নেছা জেনিফা মনি বন্দর থানার ৩৮ নম্বর ওয়ার্ড এলাকার নিশ্চিন্তাপাড়ার মৃত রাজা মিয়ার মেয়ে। রাজা মিয়া পেশায় চট্টগ্রাম বন্দরের ড্রাইভার ছিলেন।

শুনানিতে রাজা মিয়ার পরিবর্তে তার আপন খালাতো ভাই জাহাঙ্গীর আলম বলেন, ১৯৯২ সালে বন্দরে কর্মরত অবস্থায় মারা যান রাজা মিয়া। এসময় তাদের একমাত্র থাকার জায়গাটিও অধিগ্রহণ করে চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষ। এতে তিন মেয়ে নিয়ে অসহায় হয়ে পড়েন তার স্ত্রী। গত ২০১৫, ২০১৬ ও ২০১৮ সালে বেশ কয়েকবার বন্দরের লস্কর ও খালাসি পদে নিয়োগ পরীক্ষা দেওয়ার পরও চাকরি হয়নি রাজা মিয়ার মেয়ে মেহেরুন নেছার।

শুনানি শেষে খালাসি ও লস্কর পদে নিয়োগের নিশ্চয়তা পান মেহেরুন।

শুনানিতে আরো উপস্থিত ছিলেন বন্দর চেয়ারম্যান রিয়ার এডমিরাল জুলফিকার আজিজ, চট্টগ্রামের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার মো. নুরুল আলম নিজামী, দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম, দুদকের চট্টগ্রাম বিভাগীয় পরিচালক মাহমুদ হাসান, দুদক উপ-পরিচালক লুৎফুল কবির চন্দন।

মুআ/সিআর

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন