দুই সন্তানের জনক প্রেমের ফাঁদে ফেলল তরুণীকে, অন্তরঙ্গ ছবি ছড়াল ফেসবুকে

0

পরিচয় লুকিয়ে দুই সন্তানের জনক ফয়সাল ফেসবুকে প্রেমের সম্পর্ক স্থাপন করে এক নারীর সঙ্গে। সেই সুযোগে ব্যক্তিগত মুহুর্তের ছবি ও ভিডিও ধারন করেন ফয়সাল। ফয়সাল বিবাহিত ও দুই সন্তানের জনক জেনে সম্পর্ক ছিন্ন করে ওই নারী।

এরপর ব্যক্তিগত মুহূর্তের ছবি ও ভিডিও দিয়ে ব্ল্যাকমেইল শুরু করেন ফয়সাল। অনৈতিক প্রস্তাব ও টাকা আদায় করে সে।

একপর্যায়ে অনৈতিক প্রস্তাবে রাজি না হলে মো. হোসাইন (৩৪) নামে যুবকের সহযোগিতায় ওই আপত্তিকর ছবি ও ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয় ফয়সাল।

এ ঘটনায় শুক্রবার (২২ জুলাই) ভুক্তভোগী নারী কর্ণফুলী থানায় মামলা করেন। এরপর শনিবার (২৩ জুলাই) রাতে র‌্যাবের হাতে গ্রেপ্তার হয় মো. হোসাইন।

যদিও র‌্যাবের পক্ষ থেকে গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করা হয় সোমবার (২৫ জুলাই) বিকেল।

Yakub Group

গ্রেপ্তার হোসাইন কর্ণফুলী থানার চরলক্ষ্যা এলাকার অলি আহমদের ছেলে।

র‌্যাব জানায়, ২০২১ সালের এপ্রিল মাসে ফয়সালের সাথে ফেসবুকের মাধ্যমে তাদের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। পরবর্তীতে ভিকটিম যখন জানতে পারে যে ফয়সাল বিবাহিত এবং তার দুটি সন্তান আছে তখন সে ফয়সালের সাথে সম্পর্ক ছিন্ন করে। পরবর্তীতে ফয়সাল তার মোবাইলে কৌশলে ধারণকৃত ভিকটিমের ব্যক্তিগত মুহুর্তের ছবি ও ভিডিও দেখিয়ে পুনরায় তার সাথে সম্পর্ক রাখতে চায় এবং তাকে হুমকি প্রদান করে যে, ভিকটিম যদি তার সাথে শারীরিক সম্পর্ক না করে তবে সে ছবি ও ভিডিও ইন্টারনেটের মাধ্যমে ছড়িয়ে দিবে।

এভাবে ভিকটিমকে ব্ল্যাকমেইল করে ফয়সাল বিভিন্ন সময় তার কাছ থেকে টাকাও আদায় করেছে। এক পর্যায়ে ভিকটিম তার প্রস্তাবে রাজী না হওয়ায় ফয়সাল ক্ষিপ্ত হয়ে গত ৫ জুলাই মো. হোসাইনের সহায়তায় ভিকটিমের বিভিন্ন অশ্লীল ছবি ও ভিডিও তার স্বজনদের মাঝে ছড়িয়ে দেয় এবং ফেসবুকে আপলোড করে।

র‌্যাব আরও জানায়, অভিযোগ পেয়ে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে হোসাইনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য কর্ণফুলী থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

আরএম/এমএফও

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ksrm