s alam cement
আক্রান্ত
৫১০১৯
সুস্থ
৩৭০৬২
মৃত্যু
৫৫৫

থানার সামনেই খুন—‘সম্পত্তির লোভে’ দুই ভাইয়ের পরিকল্পনাতেই কায়সার হত্যা

0

জায়গা-সম্পত্তির বিরোধের জেরে চট্টগ্রাম নগরীর পাহাড়তলীতে কায়সার আহম্মেদ খুনের ঘটনায় সৎ ভাই সাজ্জাদসহ ৬ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার (২৯ এপ্রিল) রাত সাড়ে ১১ টার দিকে কায়সার নিহত হন। শনিবার (১ মে) তাদের আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পাহাড়তলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাসান ইমাম।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, কায়সারের সৎ ভাই মো. সাজ্জাদ হোসেন (৪২), মো. শওকত আলী (৪৫), হাজী মো. আফসার উদ্দিন (৪৭), খুনে সহযোগিতা কারী মো. রকিবুল আলম (২৬), মো. আরাফাত মিয়া প্রকাশ জিগার (২৪), ও মো. জহুরুল ইসলাম টিটু।

পাহাড়তলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাসান ইমাম চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে জানান, কায়সারের সঙ্গে সৎ ভাইদের দীর্ঘদিন যাবত জায়গা-সম্পত্তি নিয়ে বিরোধ ছিল। বিরোধের কারণে সৎ ভাই সাজ্জাদ, খালতো ভাই মো. রাকিবকে নিয়ে কায়সার আহম্মেদকে খুনের পরিকল্পনা গ্রহণ করে। পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী আসামিরা কায়সারকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করেছে বলে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। আটকের পর আসামিদের জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

এর আগে বৃহস্পতিবার (২৯ এপ্রিল) রাত পৌনে ১১টার দিকে নগরের পাহাড়তলী থানার সাগরিকা রোডে কাজী মসজিদের পেছনে আবদুল মোনাফের বাড়িতে জায়গা-সম্পত্তি নিয়ে বিরোধের জেরে সৎ ভাইয়ের হাতে খুন হয় মো. কায়সার আহম্মেদ।

প্রসঙ্গত, কায়সারকে হত্যা করে পালিয়ে যাওয়ার সময় সাগর (২০) নামের একজনকে সেদিন জনতা আটক করে গলধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে। ফলে খুব দ্রুতই বাকিদের গ্রেপ্তার করা যায়।

সিএম/কেএস

ManaratResponsive

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm