তুরস্ক হাসপাতাল বানাবে চট্টগ্রামে, রাষ্ট্রদূতকে চান্দগাঁওয়ে জায়গা দেখালেন মেয়র

উন্নত চিকিৎসাসেবা দিতে চট্টগ্রামে হাসপাতাল নির্মাণে আগ্রহী তুরস্ক। হাসপাতাল নির্মাণের জন্য সম্ভাব্য জায়গাও পরিদর্শন করে গেছেন বাংলাদেশে নিযুক্ত তুরস্কের রাষ্ট্রদূত মোস্তফা ওসমান তুরানসহ সংশ্লিষ্টরা।

তুরস্ক

হাসপাতাল নির্মাণে জমি বরাদ্দসহ সব রকমের সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন মেয়র, বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. রেজাউল করিম চৌধুরী।

এদিকে তুরস্কের অর্থায়নে চলা চট্টগ্রামের ‘নাজমিয়ে দেমিরেল স্বাস্থ্য ক্লিনিকে’ সেবা পাবে নগরবাসী। ২০২০ সালে ক্লিনিকটির সংস্কার ও আধুনিকায়নে নতুনভাবে কাজ শুরু করে তুরস্ক। সংস্কারকাজ চলাকালে সেবাদান কার্যক্রম বন্ধ ছিল।

রোববার (২২ জানুয়ারি) উদ্বোধন হয় ক্লিনিকের কার্যক্রম। এখন থেকে নগরীর চকবাজারের কাপাসগোলার এই ক্লিনিকে সেবা পাবে রোগীরা।

বর্তমানে এই ক্লিনিকে ডায়াগনস্টিক ল্যাব, গর্ভবতী মায়েদের বিশেষ সেবা, জরুরি চিকিৎসাসেবা ও চিকিৎসা পেশায় জড়িতদের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হয়েছে। বিনামূল্যে ওষুধ সরবরাহের কথাও জানিয়েছে সংশ্লিষ্টরা।

Yakub Group

ক্লিনিকের অর্থায়ন করেছে তুরস্কের সংস্কৃতি ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের অধীনে থাকা সরকারি বিভাগ কো-অপারেশন অ্যান্ড কো-অর্ডিনেশন এজেন্সি (টিকা)।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সিটি মেয়র মো. রেজাউল করিম চৌধুরী বলেন, ‘আমি চট্টগ্রামের স্বাস্থ্যখাতকে ঢেলে সাজাতে চাই। বর্তমানে অপ্রতুল স্বাস্থ্যসেবা কাঠামোর উন্নতিকরণে আমি নতুন হাসপাতাল গড়তে চাই। তুরস্ক এই হাসপাতাল নির্মাণে অর্থায়ন করতে রাজী হলে আমি চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন থেকে ভূমি বরাদ্দ দেব এবং সব রকমের সহযোগিতা করব।’

তুরস্কের রাষ্ট্রদূত মোস্তফা ওসমান তুরান বলেন, ‘এই ক্লিনিকটি তুরস্কের সঙ্গে বাংলাদেশের বন্ধুত্বের প্রতীক হিসেবে জনগণকে সেবা দেবে। বাংলাদেশের স্বাস্থ্য ও সেবাখাতসহ প্রতিটি খাতের উন্নয়নে তুরস্ক পাশে থাকতে চায়।’

বিশেষ অতিথি হিসেবে তুরস্কের বাংলাদেশের অনারারি কনসুলেট জেনারেল সালাহউদ্দিন কাশেম খান বলেন, ‘চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র যাতে চট্টগ্রামকে তিলোত্তমা নগরীতে পরিণত করতে পারেন, সেজন্য তুরস্কের কাছ থেকে সব ধরনের সহযোগিতা নিশ্চিতে আমি কাজ করছি। ঢাকার তুলনায় চট্টগ্রামের স্বাস্থ্যখাত অনেক পিছিয়ে আছে। এই ক্লিনিক চট্টগ্রামের স্বাস্থ্যসেবার মানবৃদ্ধিতে সহায়তা করবে।’

পরে রাষ্ট্রদূতকে হাসপাতালের সম্ভাব্য স্থান হিসেবে নগরীর চান্দগাঁওয়ের সিটি কর্পোরেশন আইটি ইনকিউবেশন সেন্টারের পাশে প্রায় ১০ একর জায়গা ঘুরে দেখান মেয়র।

এই ক্লিনিকটি ১৯৯৬ সালে তুরস্কের নবম রাষ্ট্রপতি সুলেমান দেমিরেলের স্ত্রী নাজমিয়ে ডেমিরেলের নামে প্রতিষ্ঠা করা হয়। পরে ২০২০ সালে হাসপাতালটি সংস্কার ও আধুনিকায়নে নতুনভাবে কাজ শুরু করে তুরস্ক।

আরএম/ডিজে

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ksrm