ঢাকা-চট্টগ্রামের পথে পোশাক চুরি ঠেকাতে কমিটি, বসছে সিসিটিভি ক্যামেরাও

0

অভিনব কায়দায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে দীর্ঘদিন ধরে পোশাক খাতের রপ্তানি ও আমদানির মালামাল চুরির ঘটনা ঘটছে। মাঝখানে কিছুদিন এটা বন্ধ থাকলেও এখন আবার ঘন ঘন ঘটছে চুরির ঘটনা। মহাসড়কে একটি সংঘবদ্ধ চক্র চালকদের সঙ্গে মিলে রাস্তায় কাভার্ডভ্যান দাঁড় করিয়ে এভাবে মালামাল চুরি করে যাচ্ছে। অনেক সময় কার্টনের ওজন ঠিক রাখার জন্য তারা কার্টুনে ঝুট, মাটি ইত্যাদিও ভরে দিচ্ছে। এগুলো এইভাবে আমেরিকা ইউরোপসহ বিভিন্ন দেশের ক্রেতাদের কাছে গেলে তারা দেশের পোশাক রপ্তানিকারকদের কাছে অভিযোগ জানাচ্ছেন। এতে দেশের রপ্তানিকারকরা একদিকে আর্থিক ক্ষতির শিকার হচ্ছেন, অন্যদিকে এতে নষ্ট হচ্ছে দেশের সুনামও।

এমন পরিস্থিতিতে রপ্তানির জন্য প্রস্তুত প্যাকেটজাত পোশাকপণ্য মহাসড়কে চুরি বেড়ে যাওয়ায় তা ঠেকাতে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে।

হাইওয়ে পুলিশের অতিরিক্ত মহাপরিদর্শককে প্রধান করে বিজিএমইএ, আইন প্রয়োগকারী সংস্থা ও বাংলাদেশ কাভার্ডভ্যান মালিক সমিতির প্রতিনিধি সমন্বয়ে এই কমিটি গঠন করা হয়েছে বলে বিজিএমইএর এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

সোমবার (১২ জুলাই) রাজধানীর সচিবালয়ে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে রপ্তানির জন্য প্রস্তুত পোশাক পণ্য চুরি প্রতিরোধ বিষয়ক এক সভায় এই কমিটি গঠন করা হয়।

সাম্প্রতিক সময়ে চুরি বেড়ে যাওয়ায় তৈরি পোশাক রপ্তানিকারকদের সংগঠন বিজিএমইএ এই বিষয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীসহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীগুলোর প্রধানদেরকে অভিযোগ আকারে জানায়।

সোমবারের বৈঠকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেছেন, চুরি বন্ধে গঠিত কমিটির মূল কাজ হবে সংশ্লিষ্ট সবার জন্য এসওপি (স্ট্যান্ডার্ড অপারেশনাল প্রসিডিউর) নির্ধারণ করে দেওয়া।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, ‘মহাসড়কে যেভাবেই হোক, রপ্তানি পণ্যের চুরি সম্পূর্ণরূপে বন্ধ করতেই হবে। এ ব্যাপারে বর্তমান সরকারের অবস্থান জিরো টলারেন্স। ঢাকা-চট্টগ্রাম মহসড়ককে সিসিটিভির নজরদারিতে আনতে বিভিন্ন স্থানে সিসিটিভির ক্যামেরা স্থাপনের কাজ ইতোমধ্যে শুরু হয়েছে, যা আগামী চার মাসের মধ্যে সমাপ্ত হবে।’

সোমবার এই বিষয়ক বৈঠকে সংগঠনের সভাপতি ফারুক হাসান মহাসড়ক দিয়ে কভার্ড ভ্যানে করে রপ্তানির জন্য বন্দরে পোশাক পণ্য নিয়ে যাওয়ার সময় অভিনব চুরির ঘটনার কথা তুলে ধরেন।

পুলিশের মহাপরিদর্শক বেনজীর আহমেদ চুরি প্রতিরোধে সংশ্লিষ্টদের নিয়ে কমিটি গঠনের প্রস্তাব দেন।

হাইওয়ে পুলিশের অতিরিক্ত মহাপরিদর্শক মল্লিক ফখরুল ইসলাম বলেন, চুরি প্রতিরোধে রপ্তানি পণ্যবাহী কাভার্ডভ্যানে বিশেষ স্টিকার দেওয়া যেতে পারে।

মহাসড়কে রপ্তানি পণ্য চুরি বন্ধে সব ট্রাক ও কাভার্ডভ্যানে ট্রাকিং ডিভাইস, জিপিএস স্থাপন নিয়েও আলোচনা হয় বলে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

সিপি

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm