ডিবি পুলিশ পরিচয়ে গৃহকর্তাকে বেঁধে ডাকাতি সাতকানিয়ায়

চট্টগ্রামের সাতকানিয়ায় ডিবি পুলিশ পরিচয় দিয়ে অস্ত্রের মুখে গৃহকর্তাকে বেঁধে রেখে এক বাড়িতে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। ডাকাত দল ৭ ভরি স্বর্ণালংকার, নগদ ৩ লাখ ২০ হাজার টাকা ও মোবাইল ফোনসহ মূল্যবান মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় একজনকে আটক করা হয়েছে।

গত সোমবার (৫ ফেব্রুয়ারি) দিবাগত রাত ২টার দিকে উপজেলার বাজালিয়া ইউনিয়নের পশ্চিম বড়দুয়ারা এলাকার মুহাম্মদ মোছলেম উদ্দীন ড্রাইভারের বাড়িতে এ ডাকাতির ঘটনা ঘটে।

মোছলেম ভোলা জেলা সদরের চর রামিসা ১নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা হলেও ওই এলাকায় জায়গা কিনে বাড়ি করে দীর্ঘদিন ধরে বসবাস করে আসছে। তিনি পেশায় একজন ট্রাক চালক।

ভুক্তভোগী মোছলেমের অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ আশিক নামের এক নির্মাণ শ্রমিককে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত সোমবার রাত ২টার দিকে ৫-৬ জনের একটি ডাকাত দল প্রাইভেট কারে এসে পশ্চিম বড়দুয়ারা জানাজার মাঠে গাড়িটি পার্কিং করে রাখে। এ সময় কার চালক নাসির উদ্দিন কেরানিহাট থেকে গাড়ির কাজ করে বাড়ির কাছেই ফেরেন। নাসির গাড়ি চালিয়ে এসে তার কারটি জানাজার মাঠে পার্কিং করে অপরিচিত এক লোককে দেখে জিজ্ঞেস করলে সে, আত্মীয়ের বাড়িতে বেড়াতে এসেছেন বলে জানান। হঠাৎ কোনো কিছু বুঝে উঠার আগেই ডাকাতরা নাসিরকে মারধর করে হাত পা ও চোখ বেঁধে তার কাছে থাকা নগদ ৭০ হাজার টাকা ও ২ টি মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেয়। পরে ডাকাতরা নাসিরকে মাঠের পাশে মহিউদ্দিন চৌকিদারের দোকানে সাঁটার খুলে ভেতরে বন্দি করে রাখেন। এর কিছুক্ষণ পরই ডাকাতরা উত্তর পাশে ৫০ মিটার দুরে মোছলেম ড্রাইভারের বাড়িতে ডাকাতি করে।

ভুক্তভোগী গৃহকর্তা মোছলেম বলেন, কয়েকদিন আগে ভোলার গ্রামের বাড়ি থেকে তার মাসহ আত্মীয়-স্বজনরা বাড়িতে বেড়াতে আসেন। পরিবারের সদস্যরা রাতের খাবার খেয়ে সবাই ঘুমিয়ে পড়ে। রাত ৩টার দিকে সুপারি গাছ বেয়ে ছাদ দিয়ে সংঘবদ্ধ একটি ডাকাত দল ঘরে প্রবেশ করে প্রথমে বাড়ির মহিলাদের ডিবি পুলিশ পরিচয় দিয়ে দরজা খুলতে বলেন। পরে ডাকাত দল আমার রুমে ঢুকে আমাকে হাত-পা বেঁধে, অস্ত্রের মুখে বাড়ির সবাইকে জিম্মি করে, বাড়ির কাজের জন্য রাখা নগদ ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা, ৭ ভরি স্বর্ণ ও ৭টি মোবাইলসহ মূল্যবান মালামাল লুট করে নিয়ে যায়।

তিনি বলেন, আমার ছোট ভাই আকতার হোসেন চট্টগ্রাম নগর পুলিশে চাকরি করে। রাতেই তার মাধ্যমে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে একজনকে আটক করে।

সাতকানিয়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. আতাউল হক চৌধুরী বলেন, ‘ভোরে পশ্চিম বড়দুয়ারায় একটি বাড়িতে দস্যুতার খবর পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই আমরা ঘটনাস্থলে গিয়েছি। বাড়ির মালিক মোছলেম পুলিশকে জানিয়েছেন, তাকে হাত-পা বেঁধে নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার নিয়ে গেছে।

পুলিশের একাধিক টিম ঘটনায় জড়িতদের গ্রেপ্তারে অভিযান চালাচ্ছে। এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান তিনি।

ডিজে

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!