ডা. মুরাদ নিজের হাতেই বউ পেটান, ‘জানে মারা’র হুমকিতে ৯৯৯-এ ফোন

পুলিশ আসার খবর পেয়ে সরে পড়েন মুরাদ

0

পদ হারানো প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসানের বিরুদ্ধে এবার নির্যাতনের অভিযোগ আনলেন তারই স্ত্রী ডা. জাহানারা এহসান। নির্যাতনের মুখে তিনি জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯-এ ফোন করে পুলিশের সহযোগিতা চাইলেন।

বৃহস্পতিবার (৬ জানুয়ারি) দুপুরে ডা. জাহানারা এহসান জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯-এ ফোন করে জানান, তাকে মারধর করা হচ্ছে। এমনকি প্রাণনাশের হুমকি দেওয়া হচ্ছে।

৯৯৯ থেকে বিষয়টি জানানো হয় ধানমন্ডি থানার পুলিশকে।

এরপরই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইকরাম আলীর নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল সাবেক প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসানের ১৫ নম্বর সড়কের বাসায় যায়।

পরে পুলিশ ডা. মুরাদ হাসানের স্ত্রী ডা. জাহানারা এহসানকে ধানমন্ডি থানায় নিয়ে আসে।

জিডিতে মুরাদের স্ত্রী অভিযোগ করেছেন, ১৯ বছর ধরে তারা সংসার করছেন। এক মেয়ে ও এক ছেলে রয়েছে তাদের। সাম্প্রতিক সময়ে কারণ-অকারণে স্ত্রী ও সন্তানদের ক্রমাগতভাবে শারীরিক নির্যাতন ও গালিগালাজ করে যাচ্ছেন মুরাদ। হত্যার হুমকিও দিচ্ছেন পরিবারের সদস্যদের।

জিডিতে মুরাদের স্ত্রী অভিযোগ করেন, বৃহস্পতিবার বেলা পৌনে ৩টার দিকে মুরাদ স্ত্রী-সন্তানকে গালিগালাজের পর মারধর করতে গেলে জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯-এ ফোন করেন তিনি।

তিনি জানান, ধানমন্ডি থানার পুলিশ আসার আগেই বাসা থেকে চলে যান মুরাদ। নিরাপত্তাহীনতার কারণে পুলিশের কাছে সাহায্য চেয়েছেন তিনি। মুরাদ তাকে ও সন্তানদের যে কোনো সময় ক্ষতি করতে পারেন বলেও জিডিতে উল্লেখ করেছেন তার স্ত্রী জাহানারা এহসান।

সিপি

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm