টেকনাফ রোহিঙ্গা ক্যাম্পে গোলাগুলি, পাহাড়ে লাশ গুম?

0

কক্সবাজারের টেকনাফে নয়াপাড়া শালবাগান শরণার্থী ক্যাম্পে পাহাড়ি একদল ডাকাত পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছুঁড়লে ক্যাম্পজুড়ে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। তবে এতে হতাহতের কোনো ঘটেনি বলে জানা গেছে।

মঙ্গলবার (৮ অক্টোবর) বেলা ১২টার দিকে টেকনাফের জাদিমুড়া শালবাগান নছিরউল জামান ক্যাম্পে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ জানিয়েছে, মঙ্গলবার (৮ অক্টোবর) বেলা ১২টার দিকে টেকনাফের শালবাগান রোহিঙ্গা ক্যাম্পের একটি জায়গায় জাকির ও সেলিমের নেতৃত্বাধীন ডাকাতদলের সদস্যরা অবস্থান করছে—এমন খবর পেয়ে পুলিশের একটি দল সেখানে যায়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে একপর্যায়ে ডাকাতরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোঁড়ে। পরে তারা পার্শ্ববর্তী পাহাড়ি অঞ্চলে ঢুকে পড়ে।

সোমবার (৭ অক্টোবর) গভীর রাতে শালবাগান রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে জাকির ও সেলিম গ্রুপের মধ্যে গুলিবিনিময়ের ঘটনা ঘটে। স্থানীয় লোকজন জানান, এ সময় অন্তত ৩০ থেকে ৪০ রাউন্ড গুলি ছোঁড়া হয়। ওই ক্যাম্পে প্রায়ই এই ধরনের গুলিবিনিময়ের ঘটনা ঘটছে বলে তারা জানান। সোমবার রাতের ঘটনায় অন্তত এক ডাকাত নিহত হয়েছে বলে তাদের ধারণা। স্থানীয় লোকজনের ধারণা, সেলিম গ্রুপের প্রধান মোহাম্মদ সেলিমকে হত্যা করে লাশ পাহাড়ে লুকিয়ে রাখা হয়েছে। তবে নির্ভরযোগ্য সূত্রে এ ঘটনার সত্যতা মেলেনি এখনও। কোনো লাশও উদ্ধার হয়নি।

সিপি

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন