টিসিবির পণ্য অন্য জায়গায় বিক্রি, চট্টগ্রামে র‍্যাবের হাতে আটক ১

0

চট্টগ্রাম নগরীর বায়েজীদ বোস্তামী থানার আমিন টেক্সটাইল এলাকায় অবৈধভাবে টিসিবির পণ্য গুদামজাত করে অন্য জায়গায় বিক্রি করায় একজনকে আটক করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)।

এ সময় টিসিবির লোগোযুক্ত ৩৯৮ লিটার সয়াবিন তেল, ২০০ কেজি মসুর ডাল এবং ২৫০ কেজি চিনি জব্দ করা হয়।

টিসিবির ডিলার মো. বাবুর সহায়তায় দীর্ঘদিন ধরে চক্রটি এ কাজ করে আসছিল বলে জানায় র‌্যাব।

রোববার (২১ আগস্ট) র‌্যাব-৭ চট্টগ্রামের সিনিয়র সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) মো. নুরুল আবছার আটকের বিষয়টি জানান।

তিনি বলেন, র‌্যাব গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে, কিছু অসাধু ব্যবসায়ী টিসিবির সয়াবিন তেল, ডাল ও চিনি খোলা বাজারে সাধারণ মানুষের কাছে বিক্রি না করে অধিক মুনাফা লাভের আশায় অবৈধভাবে গোডাউনে মজুত আছে- এমন তথ্যের ভিত্তিতে শনিবার (২০ আগস্ট) আমিন টেক্সটাইল মিলস লিমিটেডের ভেতরে ভাড়া করা গোডাউনে অভিযান পরিচালনা করে মো. আব্দুল আজিজ সুমনকে (৩৪) আটক করা হয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে গোডাউনের ভেতর থেকে টিসিবির লোগোযুক্ত ৩৯৮ লিটার সয়াবিন তেল, ২০০ কেজি মসুর ডাল এবং ২৫০ কেজি চিনি জব্দ করা হয়েছে।’

Yakub Group

আসামি আব্দুল আজিজ সুমনকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আরও জানায়, পলাতক আসামি টিসিবির ডিলার মো. বাবুর (৩৫) সহায়তায় দীর্ঘদিন ধরে টিসিবির পণ্য সংগ্রহ করে অবৈধভাবে গোডাউনে মজুত রাখা হতো। এরপর টিসিবির লোগো সম্বলিত সয়াবিন তেলের বোতল থেকে খালি বোতলে ভরে বাজারে বিক্রি করা হতো। একইভাবে চিনি ও ডাল সাধারণ প্যাকেটে ভরে বিক্রয় করে আসছিল চক্রটি।

র‌্যাবের এই কর্মকর্তা বলেন, সরকারি ভর্তুকি মূল্যে টিসিবির সয়াবিন তেল ১১০ টাকা, ডাল ৬৫ টাকা এবং চিনি ৫৫ টাকায় খোলা বাজারে ভোক্তাদের মধ্যে বিক্রি করার কথা। কিন্তু অসাধু ডিলার তা না করে নিজেদের ভাড়া করা গোডাউনে অবৈধভাবে মজুত করে। পরে কালোবাজারের মাধ্যমে অন্য সাধারণ পণ্যের মতো নির্ধারিত মূল্যের চেয়ে অধিক মূল্যে টিসিবির পণ্য বিক্রি করে ভোক্তাদের ক্ষতিগ্রস্ত করে আসছিল। যার কারণে ভোক্তারা দীর্ঘ সময় লাইনে দাঁড়িয়েও নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য পায় না।

আরএম/এমএফও

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ksrm