আক্রান্ত
১০৪৭৭
সুস্থ
১২৬৫
মৃত্যু
১৯৮

ঝগড়া থামাতে গিয়ে প্রাণ গেল রাবার বাগান কেয়ারটেকারের

0
high flow nasal cannula – mobile

বান্দরবানের লামা উপজেলায় রাবার বাগানে দুই পক্ষের ঝগড়া থামাতে গিয়ে এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছে।

নিহত আক্তার হোসেন (৫৩) উপজেলার সরই ইউনিয়নের আমির হামজা এলাকার একটি রাবার বাগানের কেয়ারটেকার। তিনি চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলার শীলকুপ ইউনিয়নের চরইত্যা পাড়ার বাসিন্দা মৃত আলী চানের ছেলে।

রোববার (২৮ জুন) রাত সাড়ে ১০টায় ওই রাবার বাগানে এ ঘটনা ঘটে।

সূত্র জানায়, দীর্ঘদিন ধরে আক্তার হোসেন স্বপরিবারে সরই ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলীর রাবার বাগানে কেয়ারটেকার হিসেবে কর্মরত। রোববার রাত সাড়ে ১০টার দিকে আক্তার হোসেনের জামাতা জিয়াউল হকের সঙ্গে বাগানে কর্মরত বাদশা নামে আরেক কেয়ারটেকারের ঝগড়া হয়। এক পর্যায়ে আক্তার হোসেন ঝগড়া মীমাংসার চেষ্টা করলে বাদশা উত্তেজিত হয়ে জিয়াউল হক ও আক্তার হোসেনকে গালমন্দসহ কিল ঘুষি মারেন। এতে আক্তার হোসেন হঠাৎ মাটিতে লুটিয়ে পড়লে স্বজনেরা দ্রুত উদ্ধার করে কাছাকাছি পদুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। সেখানে দায়িত্বরত চিকিৎসক আক্তার হোসেনকে মৃত ঘোষণা করেন। ঘটনার পর অভিযুক্ত কেয়ারটেকার বাদশা পলাতক রয়েছেন।

তবে স্থানীয়দের ধারণা, আক্তার হোসেন অসম্ভব রাগী স্বভাবের মানুষ। হয়তো ঝগড়ার সময় বাদশা গালমন্দ করায় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন।

এদিকে, মৃত আক্তার হোসেনের মেয়ে মোর্শেদা বেগম জানান, ঝগড়ার সময় বাদশা গালমন্দ ও ঘুষি মারলে আমার বাবা হঠাৎ মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। পরে দ্রুত উদ্ধার করে পদুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ বিষয়ে স্থানীয় ক্যায়াজুপাড়া পুলিশ ফাঁড়ি ইনচার্জ মো. শফিউল আলম বলেন, মৃত আক্তার হোসেনের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বান্দরবান সদর মর্গে পাঠানো হয়েছে। তবে প্রাথমিক তদন্তে লাশের শরীরে আঘাতের কোন চিহ্ন পাওয়া যায়নি।

এসএ

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

Manarat

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন
ksrm