জোচ্চুরি করে ৫০ লাখ পিস বিদেশি সিগারেট এনে ঢাকার হামকো চট্টগ্রামে ধরা

বন্দর দিয়ে পানি পরিশোধন মেশিনের (ওয়াটার পিউরিফায়ার মেশিন) নাম করে ৫০ লাখ পিস বিদেশি সিগারেট আনা হয়েছিল চট্টগ্রামে। জালিয়াতি করে আনা ৫ কোটি টাকা মূল্যের সেই সিগারেট ধরা পড়েছে কাস্টমস গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তর এবং চট্টগ্রাম কাস্টমসের হাতে।

ঢাকাভিত্তিক প্রতিষ্ঠান হামকো করপোরেশন জালিয়াতি করে এসব সিগারেট নিয়ে এসেছিল।

পানি পরিশোধন মেশিন (ওয়াটার পিউরিফায়ার মেশিন) আমদানির নামে ৫০ লাখ পিস সিগারেটের চালানটি গত ২৩ জুন থাইল্যান্ডের লিম চাবাং নামক বন্দর থেকে রওনা দেয়। তিনদিন পর কোটা আংগুন জাহাজে করে বুধবার (২৬ জুন) চট্টগ্রাম বন্দরে পৌঁছায় সেগুলো।

বৃহস্পতিবার (২৭ জুন) রাত ১টার দিকে ২০ ফুট দৈর্ঘ্যের কনটেইনারে আনা চালানটির কায়িক পরীক্ষার সময় আমদানিকারকের জালিয়াতি ধরা পড়ে।কনটেইনারটি খুলে ভেতরে পানি পরিশোধন মেশিনের (ওয়াটার পিউরিফায়ার মেশিন) পরিবর্তে ৫০ লাখ পিস সিগারেট পাওয়া যায়।

কনটেইনারের ২ হাজার ৫০০ কার্টনে মন্ড সুপার স্লিমস গ্রিন এপল ও মন্ড সুপার স্লিমস স্ট্রবেরি ব্র্যান্ডের সিগারেট পাওয়া গেছে। যার বাজারমূল্য প্রায় ৫ কোটি টাকা।

শুক্রবার (২৮ জুন) সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কাস্টমস গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তর চট্টগ্রাম আঞ্চলিক কার্যালয়ের অতিরিক্ত মহাপরিচালক মোহাম্মদ মিনহাজ উদ্দিন।

মিনহাজ উদ্দিন বলেন, সরকারের রাজস্ব ফাঁকির দেওয়ার জন্য জালিয়াতির মাধ্যমে পানি পরিশোধন মেশিনের (ওয়াটার পিউরিফায়ার মেশিন) এর পরিবর্তে সিগারেটের চালানটি আনা হয়েছিল। সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

আরএ

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!