জেএসসির ইংরেজিতে ৪ হাজার পরীক্ষার্থী হারালো কোথায়?

0

২০১৯ সালের চট্টগ্রাম শিক্ষাবোর্ডের অধীনে শুরু হওয়া জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট পরীক্ষা (জেএসসি) দ্বিতীয় দিনে ইংরেজি পরীক্ষায় চট্টগ্রামে অনুপস্থিত পরীক্ষার্থীর হার ১.৯৬ শতাংশ।

বৃহত্তর চট্টগ্রামের ৫ জেলার মোট পরীক্ষার্থীর মাঝে ৩ হাজার ৮০৯ জন পরীক্ষার্থী ইংরেজি পরীক্ষায় অংশ নেয়নি।

সোমবার (৪ নভেম্বর) ইংরেজি পরীক্ষায় চট্টগ্রাম, কক্সবাজার ও ৩ পার্বত্য জেলার ২৩১ কেন্দ্রে ১ লাখ ৯৪ হাজার ৫৫৬ জন শিক্ষার্থীর অংশ নেওয়ার কথা ছিল। ইংরেজি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে ১ লাখ ৯০ হাজার ৭৪৭ জন শিক্ষার্থী।

চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডের তথ্য অনুযায়ী, এ বছর চট্টগ্রামে ২৩১টি পরীক্ষাকেন্দ্র। এর মধ্যে চট্টগ্রাম জেলায় ১৩৮টি, কক্সবাজারে ৩৩টি, রাঙামাটিতে ২৩টি, খাগড়াছড়ি ২৩টি ও বান্দরবানে ১৪টি কেন্দ্রে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

এদিকে চট্টগ্রামে ১ লাখ ৩৪ হাজার ৯০৯ জন জেএসসি পরীক্ষার্থীর মধ্যে অনুপস্থিত ছিল ২৩৬৫ জন। অংশ নেয়া পরীক্ষার্থীর মাঝে পরীক্ষায় অসদুপায় অবলম্বনের অপরাধে ২ জনকে বহিস্কৃত করা হয়েছে। কক্সবাজারে ৩১ হাজার ৯৬৪ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে অনুপস্থিত ছিল ৬৯২ জন। রাঙামাটি জেলায় ১০ হাজার ২৩৬ জনের মধ্যে অনুপস্থিত ছিল ২৬১ জন এবং বহিস্কৃত হয়েছে একজন পরীক্ষার্থী। খাগড়াছড়ি জেলায় ১১ হাজার ৩০১ জনের মধ্যে অনুপস্থিত ছিল ৩৩৪ জন এবং বহিস্কৃত হয়েছে এক জন পরীক্ষার্থী। বান্দরবান জেলায় ৬ হাজার ১৪৬ জনের মধ্যে অনুপস্থিত ছিল ১৫৭ জন পরীক্ষার্থী।

চট্টগ্রাম শিক্ষাবোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মাহবুব হাসান চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে বলেন, চট্টগ্রামে এবার ইংরেজি পরীক্ষায় অনুপস্থিত পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৩ হাজার ৮০৯ জন। পরীক্ষা কেন্দ্রের সার্বিক পরিস্থিতি ভালো ছিল। তবে পরীক্ষায় অসদুপায় অবলম্বনের অপরাধে ৪ জন পরীক্ষার্থীকে বহিষ্কার করা হয়েছে। এর মাঝে সন্দ্বীপের কার্গিল সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের ২ জন, রাঙামাটির লংগদু সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের ১ জন এবং খাগড়াছড়ির মাটিরাঙা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ১ জন পরীক্ষার্থী।

এসআর/এসএস

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন