আক্রান্ত
১৪৪৮৯
সুস্থ
২৪৮৩
মৃত্যু
২৩৩

জায়গা বিরোধের জেরে প্রবাসির উপর হামলা আনোয়ারায়

0

পূর্ব শত্রুতার জের ধরে মোটরসাইকেলের গতিরোধ করে শওকতুল ইসলাম (৩৪) নামে এক পূর্তগাল প্রবাসীর ওপর হামলার অভিযোগ উঠেছে। এসময় তার কাছ থেকে ৭০ হাজার নগদ টাকাসহ মূল্যবান জিনিষপত্র ছিনিয়ে নেয় সন্ত্রাসীরা। এরপর তাকে একটি কক্ষে প্রায় ৩ ঘন্টা আটকে রেখে খালি স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর নেওয়ারও চেষ্টা করা হয়-এমন অভিযোগ ভূক্তভোগীর।

বৃহস্পতিবার (১২ ডিসেম্বর) রাতে গুরুতর আহত প্রবাসীর চিকিৎসা নেওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ জহিরুল হক ভূঁইয়া। হামলার শিকার মো. শওকতুল ইসলাম চট্টগ্রামের আনোয়ারা উপজেলার আইরমঙ্গল এলাকার মো. সিরাজুল ইসলামের পুত্র।

বুধবার (১১ ডিসেম্বর) বটতলী গোলাম শরীফের বাড়ির রাস্তা দিয়ে মোটরসাইকেল নিয়ে যাওয়ার সময় হামলার এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় ১৩ জনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেন তার ভাই ছগিরুল ইসলাম।

আসামিরা হলেন, সামশুল আলমের পুত্র জাহাঙ্গীর আলম (২৩), মৃত এয়াকুব আলীর পুত্র আবু তাহের (৪৫) ও আবুল হাশেম (৪১), গোলাম শরীফের পুত্র নুরুল আলম (৪৫) ও সামশুল আলম, আবুল হাশেমের পুত্র মোস্তাক আহমেদ (২৫), সামশুল আলমের স্ত্রী নুর খাতুন (৪২), আবুল কালামের স্ত্রী রাবেয়া খাতুন (৩৫), বদিউল আলমের স্ত্রী কামরুন নাহার (৩০), আমির হোসেনের স্ত্রী মোছাম্মৎ বুড়ি (৪৫), আবুল হাশেমের স্ত্রী শেরজানি বেগম (৪৭), আমির হোসেনের পুত্র মো. ইয়াসিন (২৬), আমির হোসেনের পুত্র আকতার হোসেন (২০)। এরা আনোয়ারা থানার বটতলী গ্রামের গোলাম শরীফের বাড়ির বাসিন্দা।

ছগিরুল ইসলাম বলেন, বুধবার বটতলী গোলাম শরীফের বাড়ির রাস্তা দিয়ে মোটরসাইকেল নিয়ে যাওয়ার সময় গতিরোধ করে অতর্কিত হামলা চালায় সন্ত্রাসীরা। এসময় তাকে আটকে রেখে খালি স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর নেওয়ারও চেষ্টা করেন। প্রায় তিন ঘন্টা আটকে রাখার খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। পরে সেখান থেকে তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। ১৮ ডিসেম্বর পূর্তগালে চলে যাওয়ার কথা রয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে আনোয়ারা থানার ওসি দুলাল মাহমুদ বলেন, একটি বির্তকিত জায়গা সংক্রান্ত বিষয়ে শওকতুল ইসলামের উপর হামলা ঘটনা ঘটে। এজাহারে যাদের আসামি করা হয়েছে, তারা সবাই জড়িত নয়। এখনও কাউকে গ্রেপ্তার করা সম্ভব হয়নি। তবে গ্রেপ্তারের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

মুআ/এসএ

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ManaratResponsive

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন
ksrm