ছদ্মবেশে বখাটে ধরলেন ম্যাজিস্ট্রেট

0

পোশাককর্মী রাইসা (ছদ্মনাম)। কারখানায় আসা-যাওয়ার পথে তাকে ইভটিজিং করে মো. রাসেল নামের এক বখাটে। বিষয়টি রাইসা তার স্বামীকে জানালে তিনি রাসেলকে ইভটিজিং করতে নিষেধ করেন। এতে রাসেল ক্ষিপ্ত হয়ে আরও কয়েকজনকে নিয়ে ইভটিজিংয়ের মাত্রা বাড়িয়ে দেয়। পরে ইভটিজিং থেকে বাঁচতে ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে অভিযোগ করেন রাইসা ও তার স্বামী। অভিযোগ পেয়ে ছদ্মবেশে ম্যাজিস্ট্রেট বখাটে মো. রাসেলকে হাতনাতে গ্রেপ্তার করে। পরে রাসেলকে ১৫ দিনের কারাদণ্ড দেন ম্যাজিস্ট্রেট।

শনিবার (২৬ ডিসেম্বর) জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. ওমর ফারুক এই অভিযান পরিচালনা করেন।

জানা গেছে, বখাটে রাসেলের বাসা খুলশী থানার ডেবারপাড়ের কুসুমবাগ এলাকায়। সে পেশায় একজন দর্জি।

চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ওমর ফারুক বলেন, কর্মক্ষেত্রে আসা-যাওয়ার সময় ইভটিজিংয়ের শিকার এক নারীর অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে এক বখাটেকে হাতেনাতে আটক করা হয়েছে। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে তাকে ১৫ দিনের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

সিএম/এএইচ

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm