চুয়েট শিক্ষক সমিতির নেতৃত্বে ড. সায়েম ও ড. বশির

0

চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (চুয়েট) শিক্ষক সমিতির ২০২২-২৩ সালের কার্যনির্বাহী পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে সভাপতি হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন যন্ত্রকৌশল বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. আবু সাদাত মুহাম্মদ সায়েম এবং সম্পাদক হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন পুরকৌশল বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. বশির জিসান।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার অধ্যাপক ড. মাহাবুবুল আলম স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ ফলাফল জানা যায়।

এর আগে বৃহস্পতিবার (১৩ জানুয়ারি) সকাল ১০টা হতে বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্যালারিতে অনুষ্ঠিত হয় এই নির্বাচন। ভোটগ্রহণ চলে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। এবারের সভাপতি এবং সহ-সভাপতি সহ ৮টি পদে এই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। মোট ভোটার ছিলেন প্রায় ২৫০জন।

৮টি পদের মধ্যে প্রচার ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক এবং ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক পদে এখন পর্যন্ত কোনো প্রার্থী পাওয়া যায়নি।

এছাড়া সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদ ব্যাতিত অন্য সকল পদে প্রার্থীগণ বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। এবার শুধু সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদক এই দুইটি পদেই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভাপতি পদের বিপরীতে ২ জন এবং সাধারণ সম্পাদকের পদে ২ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন।

Yakub Group

নির্বাচনে সভাপতি পদে পুরকৌশল বিভাগের অধ্যাপক ড. বিপুল চন্দ্র মন্ডল এবং যন্ত্রকৌশল বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. আবু সাদাত মুহাম্মদ সায়েম প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। সাধারণ সম্পাদক পদে পুরকৌশল বিভাগের শিক্ষক ড. মো. বশির জিসান এবং পেট্রোলিয়াম এন্ড মাইনিং ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ ইসলাম মিয়া প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন।

এবার বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন সহ-সভাপতি পদে রসায়ন বিভাগের অধ্যাপক ড. ম. ক. মোহাম্মদ জিয়াউল হায়দার, যুগ্ম সম্পাদক পদে ডিজেস্টার ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড ম্যানেজমেন্ট বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. মো. আবুল হাছান, কোষাধ্যক্ষ পদে তড়িৎ ও ইলেকট্রনিক কৌশল বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. সম্পদ ঘোষ এবং নির্বাহী সদস্য পদে গণিত বিভাগের অধ্যাপক ড. উজ্জ্বল কুমার দেব এবং যন্ত্রকৌশল বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. প্রসঞ্জীত দাশ।

নব নির্বাচিত চুয়েট শিক্ষক সমিতির সভাপতি ড. আবু সাদাত মুহাম্মদ সায়েম অনুভূতি প্রকাশ করে বলেন, সভাপতি হিসেবে নির্বাচিত হওয়ায় আমি অত্যন্ত আনন্দিত। শিক্ষক সমিতির সকল সদস্য ও সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ জানাই। শিক্ষকদের মধ্যে বন্ধন অটুট রাখতে ও উৎকর্ষ সাধনে শিক্ষক সমিতি কাজ করে যাবে। গবেষণা ও শিক্ষা কার্যক্রমে শিক্ষক শিক্ষার্থীদের ভূমিকায় চুয়েট আরও অনেক এগিয়ে যাক সেই আশাবাদ ব্যক্ত করছি।

কেএস

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm