চুয়েট শিক্ষক পেলেন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের ব্যানবেইস গবেষণা ফান্ড

0

বাংলাদেশ শিক্ষাতথ্য ও পরিসংখ্যান ব্যুরোর (ব্যানবেইস) গবেষণা ফান্ড অর্জন করেছেন চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (চুয়েট) পেট্রোলিয়াম অ্যান্ড মাইনিং ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ ইসলাম মিয়া।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীন ব্যানসেইসের আওতায় মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগ শিক্ষাখাতে উচ্চতর গবেষণা সহায়তা কর্মসূচির জন্য এই ফান্ড পান তিনি।

জানা গেছে, ২০২১-২২ অর্থবছরে মুজিববর্ষে বাংলাদেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রায় বঙ্গবন্ধুর উন্নয়ন ভাবনা সম্পর্কিত গবেষণা প্রস্তাব বাছাই ও মনিটরিং কমিটি কর্তৃক অর্থায়নের জন্য সুপারিশপ্রাপ্ত হয়েছেন তিনি।

চলতি বছরের গত ১০ এপ্রিল ব্যানবেইস এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানা যায়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ শিক্ষাখাতে উচ্চতর গবেষণা সহায়তা কর্মসূচির আওতায় ২০২১-২২ অর্থবছরে মুজিববর্ষে বাংলাদেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রায় বঙ্গবন্ধুর উন্নয়ন ভাবনা সম্পর্কিত গবেষণার গবেষণা প্রস্তাব বাছাই ও মনিটরিং কমিটি কর্তৃক অর্থায়নের জন্য গবেষণা প্রস্তাব সুপারিশপ্রাপ্ত হয়েছে।

Yakub Group

এই গবেষণা প্রস্তাবের বিপরীতে নির্ধারিত বরাদ্দের আলোকে ব্যয় বিভাজন ও শর্ত অনুসরণ করে সম্পূর্ণ প্রস্তাব সংশোধন করে আগামী ২২ এপ্রিলের মধ্যে জিএআরই সফটওয়্যারে হালনাগাদসহ করে দুই কপি গবেষণা প্রস্তাবের নথি ব্যানবেইসে পাঠাতে হবে।

দুই বছর মেয়াদী এই প্রকল্পের শিরোনাম হচ্ছে
‘এপ্লিকেশন অফ অল-বেইসড প্রেডিক্টিভ মডেল ফর গ্যাস রিসোর্স এসেসমেন্টঃ ইমপ্লিমেন্টেশন অফ বঙ্গবন্ধু থটস অন এনার্জি সিকিউরিটি।’

উল্লেখ্য, এই গবেষণা প্রস্তাবের বিপরীতে ড. মোহাম্মদ ইসলাম মিয়া দুই কিস্তিতে ১০ লাখ টাকার সরকারি গবেষণা অনুদান পাবেন।

এই গবেষক সম্প্রতি কানাডার স্বনামধন্য মেমোরিয়াল বিশ্ববিদ্যালয় থেকে তেল ও গ্যাস প্রকৌশল বিষয়ে পিএইচডি ডিগ্রী অর্জন করেন।

ড. ইসলামের গবেষণার বিষয়বস্তু মূলত ডেটা অ্যানালিটিক্স এন্ড মেশিন লার্নিং ইন পেট্রোলিয়াম/এনার্জি ইঞ্জিনিয়ারিং, রিজার্ভার মডেলিং ও জিওমেকানিক্স এবং এনার্জি সিকিউরিটি। তাঁর ৩৫ এর অধিক গবেষণাকর্ম এলসেভিয়ার, স্প্রিঞ্জার, এসপিইসহ বিভিন্ন স্বনামধন্য আন্তর্জাতিক জার্নাল এবং কনফারেন্সে প্রকাশিত হয়েছে।

ড. ইসলাম মিয়া বলেন, ‘এই গবেষণা প্রকল্প বাস্তবায়নে চতুর্থ শিল্প বিপ্লব যুগের আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স তথ্য-প্রযুক্তি ব্যবহার করা হবে। গবেষণার ফলাফলে দেশীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে পিএমই বিভাগ তথা চুয়েটের সুনাম বয়ে আনবে। এমন গবেষণা কাজের জন্য বাংলাদেশ সরকারের এই কার্যক্রমকে সাধুবাদ জানাই। এতে করে গবেষকরা গবেষণা কাজে আরও বেশি উৎসাহিত হবে।’

এমএফও

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm