চুয়েটে চলছে আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় ছায়া জাতিসংঘ সম্মেলন

চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (চুয়েট) চলছে দুই দিনব্যাপি আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় ছায়া জাতিসংঘ সম্মেলন। দ্বিতীয়বারের মতো সম্মেলনটি আয়োজন করছে বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যারিয়ারমুখী সংগঠন চুয়েট মডেল ইউনাইটেড নেশনস ক্লাব (চুয়েট মান)।

সম্মেলনটি চুয়েটকেন্দ্রিক হলেও আগ্রহী চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) ও আন্তর্জাতিক ইসলামিক বিশ্ববিদ্যালয়ের (আইআইইউসি) অনেক শিক্ষার্থী এতে অংশগ্রহণ করে।

প্রসঙ্গত, বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়কেন্দ্রিক গড়ে ওঠা মডেল ইউনাইটেড নেশনস ক্লাব বা ছায়া জাতিসংঘ সংগঠনগুলো মূলত জাতিসংঘের ন্যায় বিভিন্ন ইস্যুতে সম্মেলন আয়োজন করে থাকে। প্রতিযোগীদের সেখানে বিভিন্ন দেশের প্রতিনিধিত্ব করতে হয়।

বিচারকরা একজন প্রতিযোগীর কূটনৈতিক দক্ষতার বিচারে তাকে বিজয়ী ঘোষণা করে থাকে। চুয়েটে সর্বপ্রথম ২০১৯ সালে এরকম সম্মেলন আয়োজিত হয়েছিল।

এবারের সম্মেলনে মোট ১০১ জন প্রতিযোগী অংশগ্রহণ করে। জাতিসংঘের আদলে তিনটি আলাদা কমিটিতে বিভক্ত হয়ে সম্মেলনটি অনুষ্ঠিত হচ্ছে। কমিটিগুলো হলো— ইউনাইটেড ন্যাশন্স ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রাম (ইউএনডিপি), ইউনাইটেড ন্যাশনস হিউম্যান রাইট কাউন্সিল (ইউএনএইচআরসি) ও ইউনাইটেড ন্যাশনস হিউম্যান রাইট কাউন্সিল (ইউএনএইচআরসি)।

ইউএনডিপি কমিটিতে এবারের এজেন্ডা দেওয়া হয় বিশ্বব্যাপি দাতব্য কাজ বজায় রাখা এবং উন্নয়নের জন্য তহবিল ব্যবহার করা। ইউএনএইচআরসি কমিটির এজেন্ডা ছিল সাইবারস্পেসে গোপনীয়তা এবং বাকস্বাধীনতার অধিকার নিশ্চিত করা। ডিআইএসইসি কমিটির এজেন্ডা ছিল অস্ত্রের বিস্তার এবং গণবিধ্বংসী প্রতিরোধ।

আয়োজন নিয়ে সংগঠনটির সভাপতি ইশরাক আহমেদ বলেন, ‘এ সম্মেলনের মাধ্যমে চুয়েট শিক্ষার্থীরা নেটওয়ার্কিং, কমিউনিকেশন এবং লিডারশিপের মতো গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে দক্ষতা উন্নয়ন করতে পারবে। পাশাপাশি, ভবিষ্যতে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে আয়োজিত প্রতিযোগিতায় ভালো করতে পারবে বলে আশা করছি।’

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!