চালকরা মিলে চবি ছাত্রীকে নিতে চেয়েছিল টার্মিনালে, উদ্দেশ্য ছিল খারাপ

0

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) মার্কেটিং বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের এক ছাত্রীকে চলন্ত বাসে যৌন হয়রানির ঘটনায় ভুক্তভোগী ছাত্রী ‘হ্যালো কমিশনার’ পেইজে অভিযোগ জানাতেই অভিযুক্ত তিনজনকে গ্রেফতার করেছে নগর গোয়েন্দা পুলিশ। জিজ্ঞাসাবাদে তিন নিপীড়নকারী অপরাধ স্বীকার করেছে।

রোববার (১ ডিসেম্বর) দুপুরে সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানিয়েছেন অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার আমেনা বেগম।

৩০ নভেম্বর রাতে গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে নগরীর চান্দগাঁও থানার বাস টার্মিনাল ও বাহির সিগনাল এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতার তিনজন হলো সোহাগ নন এসি বাসের বাসচালক এহসান করিম (৩২), সুপারভাইজার আলী আব্বাস (৩০) ও হেলপার মো. ভুট্টু (৩০)। তাদের সবার বাড়ি কক্সবাজার জেলার চকরিয়া এলাকায়।

চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন ‍পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার আমেনা বেগম বলেন, ‘বাসের সব যাত্রী নেমে যাওয়ার পর খারাপ উদ্দেশ্যে ওই ছাত্রীকে নিয়ে বাস চালিয়ে টার্মিনালের দিকে চলে যেতে চেয়েছিল বাসের চালক এহসান করিমসহ অন্যরা। বাসের সুপারভাইজার ও হেলপারের সঙ্গে অনেকক্ষণ ধস্তাধস্তির পর ওই ছাত্রী বাস থেকে নেমে পড়েন। পরবর্তীতে ফেসবুকে ঘটনার বিবরণ দিয়ে হ্যালো কমিশনার পেইজে অভিযোগ জানায়। সিসিটিভি ফুটেজ এর মাধ্যমে শনাক্ত করে গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে তাদের গ্রেফতার করা হয়।’

তিনি আরও বলেন, ‘নগরীর বিমানবন্দর এলাকা থেকে চান্দগাঁও এলাকা পর্যন্ত সিসিটিভি ফুটেজের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। তাই সকলের প্রতি অনুরোধ থাকবে বাসে যাত্রী না থাকলে খালি বাসে উঠা উচিত নয়। আমরাও পর্যবেক্ষণে রয়েছি এ ধরনের অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার পুনরাবৃত্তি যেন না ঘটে।

এসআর/এসএ

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন