চাঁদা না পেয়ে অটোরিকশায় আগুন, সন্ত্রাসীদের গ্রেপ্তারে ২ দিনের আল্টিমেটাম

রাঙামাটির আসামবস্তি-কাপ্তাই সড়কে ‘বাৎসরিক চাঁদা’ না পেয়ে সিএনজিচালিত অটোরিকশা পুড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। শুক্রবার (১৬ সেপ্টেম্বর) সকালে রাঙামাটি সদর উপজেলার জীবতলী ইউনিয়নের আগরবাগান এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

এদিকে বিকালে এ ঘটনায় রাঙামাটি শহরে বিক্ষোভ বিক্ষোভ ও সমাবেশ করেছে রাঙামাটি অটোরিকশা শ্রমিক ইউনিয়ন। শ্রমিক ইউনিয়নের নেতারা জড়িত সন্ত্রাসীদের গ্রেপ্তারে ২ দিনের আল্টিমেটাম দিয়েছেন। অন্যথায় কঠোর কর্মসূচি দেবেন বলে হুঁশিয়ারি দেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার সকালে সদর উপজেলার জীবতলী ইউনিয়নের আগরবাগান এলাকায় একটি সিএনজিচালিত অটোরিকশা পুড়ে দেয় সন্ত্রাসীরা। পরে খবর পেয়ে আইনশৃঙ্খলারক্ষাকারী বাহিনীর একটি টহল দল ঘটনাস্থলে যায় এবং একইসঙ্গে কাপ্তাই ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের একটি ইউনিট ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। চালকদের অভিযোগ, বাৎসরিক চাঁদা না দেওয়ায় নাম্বারবিহীন ‘অন টেস্ট’ অটোরিকশাটি পুড়িয়ে দেওয়া হয়।

এদিকে এ ঘটনার প্রতিবাদে শুক্রবার বিকালে পৌরসভা চত্বর থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের হয়ে জেলা শহরের প্রাণকেন্দ্র বনরূপার সিএনজিঅটোরিকশা স্টেশনে সমাবেশে মিলিত হয়। সমাবেশে রাঙামাটি জেলা অটোরিকশা শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি পরেশ মজুমদার বলেন, আমরা আর কত ক্ষতিগ্রস্ত হব। সন্ত্রাসীরা আমাদের বহু ভাইকে এর আগেও হামলা ও হত্যা করেছে। কিন্তু আমরা তার কোন বিচার পাইনি। আজ আমরা বিচারহীনতার কারণে সন্ত্রাসীদের ভয় নিয়ে পাহাড়ে গাড়ি চালাচ্ছি। আমরা আজ যে দাবিতে রাস্তায় নেমেছি তার বিচার চাই, না হলে সকল প্রকার পরিবহন বন্ধ করে রেখে রাঙামাটি অচল করে দিব।

এসময় সমাবেশ থেকে ৩ দফা দাবি জানিয়ে ৪৮ ঘন্টার আল্টিমেটাম দেন শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান বাবু। দাবিসমূহ হলো- সকল অটোরিকশা শ্রমিকদের নিরাপত্তা দিতে হবে, সন্ত্রাসীদের গ্রেফতারপূর্বক শাস্তি দিতে হবে এবং গাড়ি পুড়িয়ে দেওয়ার ক্ষতিগ্রস্ত শ্রমিককে ক্ষতিপূরণ দিতে হবে। ৩ দফা দাবি ৪৮ ঘন্টার মধ্যে পূর্রণ না হলে রাঙামাটির সকল পরিবহন বন্ধ করে দিয়ে অচল করে দেওয়ার হুঁশিয়ারি দেন এই শ্রমিক নেতা।

Yakub Group

এসময় সমাবেশে রাঙামাটি অটোরিকশা শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি পরেশ মজুমদারের সভাপতিত্বে আরও উপস্থিত ছিলেন, সমিতির সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান বাবু, অটোরিকশা মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মহিউদ্দিন পিয়ারু, শ্রমিক ইউনিয়নের সহ-সভাপতি আবুল কালাম, যুগ্ম-সম্পাদক মো বেলাল, অর্থ সম্পাদক অজিত দাশসহ আরও অনেকেই।

আগুনে পোড়া সিএনজি অটোরিকশার চালক মো. কামাল হোসেন জানান, ‘সকালে রিজার্ভবাজার থেকে দুজন যাত্রী নিয়ে কাপ্তাই যাওয়ার পথে ৪-৫ জন ছেলে রাস্তায় চিল্লাচিল্লা করে সড়কের পথ আটকে দেয়। আমার কাছে টোকেন না থাকায় তাদের বসের কাছে যেতে বলে। সবার কাছে অস্ত্র থাকায় আমিও ভয়ে ছিলাম। তাদের বস আমাকে গুলি করতে চেয়েছে। আমি তখন পা ধরে জীবন ভিক্ষা চাই এবং আমি ১ হাজার টাকা দিয়ে টোকেন নিতে চাইলেও তারা তা না শুনে সিএনজিতে আগুন লাগিয়ে দিয়ে চলে যায়।’

রাঙামাটির কোতোয়ালী থানার ওসি মো. কবির হোসেন জানান, সকালে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়েছে। চাঁদা দাবির কারণে এই ঘটনা ঘটেছে। বিষয়টি আমরা দেখছি।

সিপি

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ksrm