চলন্ত বাসে তরুণীকে ধর্ষণের চেষ্টা বাকলিয়ায়, চালক-হেলপার আটক

0

চট্টগ্রাম নগরীর বাকলিয়ায় চলন্ত বাসে তরুণীকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে দুইজনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। বৃহস্পতিবার (২৬ মে) ভোরে হাটহাজারী উপজেলা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, চালক আনোয়ার হোসেন টিপু ও হেলপার জনি।

বিষয়টি চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের (সিএমপি) দক্ষিণ জোনের উপকমিশনার মো. জসিম উদ্দিন।

তিনি বলেন, চিকিৎসাধীন অবস্থায় মঙ্গলবার ওই তরুণীর জ্ঞান ফেরে। বুধবার (২৫ মে) দুপুরে পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে ওই তরুণী ধর্ষণ চেষ্টা শিকার হন বলে অভিযোগ করেন।

থানা সূত্রে জানা যায়, চান্দগাঁও এলাকার বাসিন্দা ১৯ বছর বয়সী এই তরুণী। নগরীর কালুরঘাট বিসিক শিল্প এলাকায় একটি পোশাক কারখানায় চাকরি করেন তিনি।

Yakub Group

কারখানার বাসে ওই তরুণী প্রতিদিন আসা-যাওয়া করেন। গত বৃহস্পতিবার রাত ৯টার দিকে কারখানা ছুটি হয়। তিনি বাসায় ফেরার জন্য অন্য শ্রমিকদের সঙ্গে বাসে ওঠেন।

বাস বহদ্দারহাট এলাকায় আসার পর অন্য শ্রমিকরা নেমে যান। এ সময় পেছনের আসন থেকে সামনে এগিয়ে এসে নামার সময় তাকে না নামিয়ে বাস দ্রুত রাহাত্তারপুলের দিকে এগিয়ে যায়।

এরপর রাহাত্তারপুল এলাকা থেকে ওই তরুণীকে উদ্ধার করে স্থানীয়রা চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করান।

জ্ঞান ফেরার পর ওই তরুণী পুলিশকে জানান, চলন্ত বাসে তাকে ধর্ষণের চেষ্টা করা হয়েছিল। ধর্ষণের হাত থেকে বাঁচতে তিনি বাস থেকে লাফ দিয়েছেন।

এ বিষয়ে সিএমপি’র অতিরিক্ত উপ কমিশনার (দক্ষিণ) নোবেল চাকমা বলেন, ‘বৃহস্পতিবার সকালে অভিযান চালিয়ে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে জনি দাশকে (১৮) ও আনোয়ার হোসেন টিপুকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বাসের চালকের আসনে ছিলেন সহকারী জনি। আর চালক টিপু দরজায় দাঁড়িয়ে ছিলেন। বাস যখন বহদ্দারহাট থেকে রাহাত্তারপুলের দিকে যেতে থাকে, তখন চালক তাকে ধর্ষণের চেষ্টা করেন। এ সময় চলন্ত বাস থেকে লাফ দেন তরুণী।’

আরএ/এমএফও

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm