চবি সভাপতিকে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের জরুরি ‘পরোয়ানা’, নেতাদের ধারণা মেয়েঘটিত ব্যাপার

0

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সভাপতি রেজাউল হক রুবেলকে ‘শৃঙ্খলাবিরোধী কাজে লিপ্ত’ থাকার অভিযোগে কারণ দর্শানোর নোটিশ দিয়েছে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ। একইসঙ্গে তার বিরুদ্ধে কেন সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে না তার কারণসহ আগামী তিন কার্যদিবসের মধ্যে লিখিতভাবে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের দপ্তর সেলে জমা দেওয়ারও নির্দেশ দেওয়া হয়।

মঙ্গলবার (১৯ জুলাই) রাত ১১টার দিকে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও সাধারন সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এই আদেশ দেওয়া হয়।

তবে হঠাৎ কেন এমন নোটিশ তার কারণ জানতে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি রেজাউল হক রুবেলের মুঠোফোনে একাধিকবার ফোন করেও অপরপ্রান্ত থেকে সাড়া পাওয়া যায়নি।

তবে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল টিপু চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে বলেন, ‘আমরা নোটিশটি দেখেছি। কিন্তু এখনও পর্যন্ত ঠিক কোন্ বিষয়ে বা কোন্ কারনে ওনাকে শোকজ করা হয়েছে তা বলা যাচ্ছে না। আমরা কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাথে এ বিষয়ে আলাপ করে পরবর্তীতে জানাবো।’

চবি শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি রুবেল শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেলের অনুসারী হিসেবে পরিচিত। সভাপতির দায়িত্ব ছাড়াও রুবেল চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ভিত্তিক গ্রুপ সিএফসির ‘গ্রুপ লিডার’ হিসেবে কাজ করছেন।

Yakub Group

হঠাৎ কী এমন ‘শৃঙ্খলাবিরোধী কাজের’ জন্য রুবেলকে শো-কজ করা হলো এই তথ্য জানতে চবি ছাত্রলীগের একাধিক নেতার সাথে যোগাযোগ করা হলেও তারা স্পষ্ট করে কিছু বলতে পারেননি। তবে কোনো কোনো নেতা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেছেন, মেয়েঘটিত একাধিক ঘটনায় জড়িয়ে যাওয়ার কারনে রুবেলের বিরুদ্ধে ক্ষেপেছে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ।

এদিকে চবি ছাত্রলীগের কমিটি পূর্ণাঙ্গ হওয়ার আভাস বেশ জোরেসোরেই শোনা যাচ্ছে সাম্প্রতিক সময়ে। চবি ছাত্রলীগ কর্মীদের থেকে জীবনবৃত্তান্তও আহ্বান করা হয়েছে এ নিয়ে। চবি ছাত্রলীগের নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক নেতা অভিযোগ করেন, পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে পদ পাইয়ে দেওয়ার নাম করে একাধিক ছেলের থেকে মোটা অংকের টাকা এবং মেয়ে কর্মীদের বাজে প্রস্তাব দেওয়ার কথা তারা শুনেছেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীকে যৌন হয়রানি করে ভিডিও করার অভিযোগে গত কয়েকদিন ধরে উত্তপ্ত ক্যাম্পাস। সেই ছাত্রীকে যৌন নিপীড়নের পর ভিডিও ধারণ করে দফায় দফায় ব্ল্যাকমেইলিং করা হয়েছে— এমন গুরুতর অভিযোগও উঠেছে। আর এই ঘটনায় বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা প্রক্টরের কার্যালয়ে অভিযোগ জানাতে গেলে চবি ছাত্রলীগের সভাপতি রুবেল তাদের বাধা দেন বলে খবর প্রকাশ হয় সংবাদমাধ্যমগুলোতে।

এছাড়াও রাত-বিরাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীদের এসএমএস ও ফোন করে তিনি বিরক্ত করেন— এমন অভিযোগও করা হয় রুবেলের বিরুদ্ধে। এমনকি কারণ ছাড়াই শিক্ষার্থীদের তার সাথে দেখা করতেও বাধ্য করতেন রুবেল। এমন আলাপচারিতার একাধিক স্ক্রিনশর্ট হাতে এসেছে চট্টগ্রাম প্রতিদিনের হাতে।

এর আগে ২০২০ সালের ৫ নভেম্বর নগরীর একটি আবাসিক হোটেলে মেয়ে নিয়ে রুমে যাওয়ার একটি ঘটনা ঘটান রুবেল। রুম ভাড়া নেওয়ার জন্য হোটেলের ফরমে রুবেল মহিলাটিকে নিজের স্ত্রী হিসেবে পরিচয় দেন। যদিও সেই ফরমের সব নাম ঠিকানা ছিল বানোয়াট। রুবেল তখন দাবি করেছিলেন পরনারীর সাথে না, নিজের বোনের সাথেই পারিবারিক কারণে হোটেলটিতে উঠেছিলেন তিনি। যদিও স্থানীয়ভাবে হোটেলটি নারী নিয়ে ব্যবসার জন্য চিহ্নিত।

বিএস/সিপি

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ksrm