চবির ৫দিন ব্যাপি ভর্তি পরীক্ষা শুরু

0

জুবাইর উদ্দিন, চবি : চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৮-২০১৯ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষের  ৫(পাঁচ) দিন ব্যাপি ভর্তি পরীক্ষা শুরু হয়েছে আজ শনিবার (২৭ অক্টোবর) থেকে। চলবে বুধবার (৩১ অক্টোবর) পর্যন্ত।

ভর্তি পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে ক্যাম্পাসে জোরদার করা হয়েছে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

এ বছর খ-ইউনিটের মাধ্যমে ভর্তি পরীক্ষা শুরু হলো। দুই শিফটে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।১ম শিফট সকাল ৯ঃ৪৫ এবং ২য় শিফট দুপুর ২ঃ১৫ মিনিটে ক্যাম্পাসেই পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

ক্যাম্পাসের আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ এবং পরীক্ষায় জালিয়াতি রোধে সতর্ক অবস্থানে রয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন এবং পুলিশ।

চবি উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, ‘সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনা করে শান্তিপূর্ণ ভাবে পরীক্ষা নিতে সব ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। ক্যাম্পাসে বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা হিসেবে প্রক্টর দফতর, বিএনসিসি, রোভার স্কাউটের পাশাপাশি রাষ্ট্রীয় আইন শৃঙ্খলা বাহিনী নিয়োজিত আছে।’

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর আলী আজগর চৌধুরী জানান, পরীক্ষার হলে মোবাইল ফোনসহ সব ধরনের ইলেক্ট্রনিক ডিভাইস বহন ও ব্যবহার নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

তিনি জানান,প্রশ্নপত্র ফাঁস এবং জালিয়াতি রোধে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন স্থানে সিসিটিভি ক্যামেরা বসানো হয়েছে। মোট ৭৬টি সিসিটিভি ক্যামেরার সাহায্যে ক্যাম্পাসকে নজরদারি মধ্যে রাখা হয়েছে।যদি ভর্তি পরীক্ষা জালিয়াতিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের কোন শিক্ষার্থী জড়িত থাকেন, ধরা পড়লেই তার ছাত্রত্ব বাতিল করা হবে।

আজ থেকে পরীক্ষার শেষ দিন পর্যন্ত ক্যাম্পাসের ভিতর সব ধরনের যানবাহন চলাচল নিষিদ্ধ।ক্যাম্পাসের আশেপাশে কোথাও কোন ধরনের সিট বিক্রি করতে দেয়া হচ্ছে না।যদি কেউ করে থাকে তাহলে তাঁকে পুলিশে দেয়া হবে। ক্যাম্পাসের ভিতরে কোন প্রকার বুথ বসানো যাবেনা। তবে জিরো পয়েন্ট,শহীদ মিনার এবং চাকসু ভবনের সামনে চট্টগ্রাম জেলা পুলিশের সহায়তায় হেল্প ডেস্ক বসানো হয়েছে। যেখানে পরীক্ষার্থীদের সব ধরনের সহায়তা দেয়া হবে।

প্রক্টর আরও জানান, ক্যাম্পাসের আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি বজায় রাখতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন আছে। একই সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনারের সামনে ভ্রাম্যমাণ আদালত অবস্থান করছে। যদি কেউ পরীক্ষায় জালিয়াতিসহ এ সংক্রান্ত কোনো অপরাধ করে, তবে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে তাৎক্ষণিক বিচার করা হবে। ভর্তি পরীক্ষায় জালিয়াতি রোধে ‘সিইউ এ্যান্টিপ্রক্সি অ্যাপ’ ব্যবহার করা হচ্ছে।

র্যাগিং এর বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থান নিবে প্রশাসন। যদি কোন শিক্ষার্থী কোন ভাবেই র্যাগিং এর শিকার হন এবং তিনি যদি অভিযোগ দেন তাহলে অবশ্যই ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আজ শনিবার ২৭ অক্টোবর থেকে ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত এ,বি এবং ডি ইউনিটের সকাল ৯টা ৪৫ মিনিট এবং বিকেল ২টা ১৫মিনিটে দুইটি শিফটে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।সি ইউনিট ও উপ ইউনিটের পরীক্ষা এক শিফটে অনুষ্ঠিত হবে। এবছর বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪ হাজার ৯২৬টি আসনের (বিভিন্ন কোটাসহ) বিপরীতে ভর্তি পরীক্ষায় সর্বমোট ১ লাখ ৩৬ হাজার ২৪৭ জন শিক্ষার্থী ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করছে।

ভর্তি পরীক্ষায় ছবি সত্যায়িত করা লাগবে না। সত্যায়িত ছাড়াই শিক্ষার্থীরা পরীক্ষা দিতে পারবেন। প্রবেশপত্রে সত্যায়িত করার নির্দেশনা থাকলেও শিক্ষার্থীদের দুর্ভোগের কথা বিবেচনা করে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন