আক্রান্ত
৯১২৩
সুস্থ
১০৮৪
মৃত্যু
১৮৪

চবির অফিস চালাবেন পার্শ্ববর্তী এলাকার কর্মকর্তা-কর্মচারীরাই

0
high flow nasal cannula – mobile

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) ক্যাম্পাস ও আশপাশের এলাকায় অবস্থানরত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মাধ্যমে সীমিত পরিসরে অফিসিয়াল কার্যক্রম পরিচালনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কর্তৃপক্ষ। এ সময় যথারীতি জরুরী পরিসেবাগুলো চালু থাকবে।

শনিবার (৩০ মে) রাতে বিষয়টি চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে নিশ্চিত করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর প্রফেসর এসএম মনিরুল হাসান।

তিনি বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ের অফিসসমূহ সীমিত পরিসরে খোলা থাকবে। সামনে বাজেটসহ কিছু জরুরী কাজে অফিস খুলতে হচ্ছে। তবে এসময় আমাদের স্টাফ বাস চলবে না। ক্যাম্পাস ও তার আশেপাশে যারা আছে তারা অফিসে আসবেন। আর কোনো স্টাফকে যদি আমাদের দরকার হয় আমরা তাকে ডেকে নেবো।’

তিনি আরও বলেন, ‘যেহেতু ইউজিসির নির্দেশনা আছে তাই একাডেমিক কার্যক্রম চলবে না। কর্মকর্তা, কর্মচারীদের সবাইকে না আসলেও চলবে। পরবর্তীতে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ খোলার বিষয়ে নির্দেশনা দেবে।’

এর আগে শুক্রবার (২৯ মে) বিশ্ববিদ্যালয়ের অফিসিয়াল কার্যক্রম চালুর সিদ্ধান্ত হয়েছে উল্লেখ করে গণমাধ্যমে প্রেসরিলিজ পাঠায় বিশ্ববিদ্যালয় তথ্য অফিস। এর পরপরই বিষয়টি নিয়ে তীব্র প্রতিক্রিয়া দেখা দেয় শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারী মহলে।

এর প্রেক্ষিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের অফিসিয়াল কার্যক্রম চালুর সিদ্ধান্ত জানিয়ে তথ্য অফিসের পাঠানো প্রেসবিজ্ঞপ্তির ২৪ ঘণ্টার মাথায় নতুন সিদ্ধান্ত নিতে হল বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে।

এর আগে শনিবার অফিস খোলার বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় কর্মকর্তা সমিতি ও কর্মচারী সমিতির নেতৃবৃন্দের পক্ষ থেকে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের সঙ্গে আলোচনাও হয়েছে দফায় দফায়।

বিশ্ববিদ্যালয় কর্মচারী সমিতির নেতৃবৃন্দ অফিস খোলা রাখলে পরিবহন, কর্মস্থলসহ প্রত্যেক স্থানে সরকার নির্ধারিত স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিতের দাবি জানায়। প্রত্যেকের জন্য পর্যাপ্ত পিপিই, মাস্কসহ সুরক্ষাসামগ্রী নিশ্চিতের পাশাপাশি যদি কেউ করোনা আক্রান্ত হয় কিংবা মারা যায় উভয়ক্ষেত্রেই যুক্তিযুক্ত ক্ষতিপূরণেরও দাবি জানায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে।

এদিকে শনিবার (৩০ মে) দুপুরে করোনাভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় প্রকৌশল দপ্তরের তৃতীয় শ্রেণির এক কর্মচারীর মৃত্যুর পর থেকে বিশ্ববিদ্যালয়জুড়ে বিরাজ করছে আক্রান্ত।

চট্টগ্রামের হাটহাজারী উপজেলায় অবস্থিত এ বিশ্ববিদ্যালয়ের ২৮ হাজার শিক্ষার্থী ও ৪ হাজার শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারী রয়েছে।

এমআইটি/এমএফও

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

Manarat

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন
ksrm