আক্রান্ত
২৩৮৭০
সুস্থ
১৮৬৭৪
মৃত্যু
৩১৩

চবিতে হাইটেক পার্কের ভূমি পরিদর্শনে বিশেষজ্ঞ দল

0

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) ক্যাম্পাস এলাকায় প্রস্তাবিত বঙ্গবন্ধু হাই-টেক পার্কের ভূমি পরিদর্শন করেছে বাংলাদেশ হাই-টেক কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (সচিব) হোসনে আরা বেগম এনডিসি’র নেতৃত্বে একটি উচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন বিশেষজ্ঞ টিম।

এ সময় তারা প্রস্তাবিত বঙ্গবন্ধু হাই-টেক পার্ক নির্মাণের কার্যক্রম শুরুর ব্যাপারে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দেন।

শনিবার (১৪ নভেম্বর) সকাল ১১টায় প্রতিনিধি দল বিশ্ববিদ্যালয়ে আসেন। পরে তারা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. শিরীণ আখতারের সঙ্গে তাঁর অফিস কক্ষে সৌজন্য সাক্ষাৎ এবং মতবিনিময় করেন।

এ সময় উপাচার্য বলেন, আধুনিক বিশ্বের সঙ্গে নিজেদের অবস্থান সুদৃঢ় করতে শিক্ষার্থীদেরকে একাডেমিক শিক্ষার পাশাপাশি তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তিতে দক্ষতা অর্জন অত্যন্ত জরুরি। তাই চবি আঙিনায় প্রস্তাবিত বঙ্গবন্ধু হাই-টেক পার্ক নির্মিত হলে একদিকে শিক্ষার্থীরা যেমন তথ্য-প্রযুক্তিতে নিজেদের জ্ঞানভাণ্ডার সমৃদ্ধ করতে পারবে তেমনি এ বিশ্ববিদ্যালয়সহ এতদঅঞ্চলের একটি বৃহৎ জনগোষ্ঠীর কর্মসংস্থানের সুযোগ অবারিত হবে।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ এ বাস্তব সত্যকে উপলব্ধি করে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে বঙ্গবন্ধু হাই-টেক পার্ক স্থাপনের সম্ভাব্য সকল সুযোগ-সুবিধা দেওয়ার জন্য ইতোমধ্যে ভূমি বরাদ্ধ করেছে এবং সরকারের সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়কে এখতিয়ারভুক্ত সকল প্রকার সুবিধা প্রদানে প্রস্তুত রয়েছে। চবি উপাচার্য বিশেষজ্ঞ টিমকে এ বিষয়ে দ্রুত কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য তাঁদের আন্তরিক সহযোগিতা কামনা করেন।

প্রতিনিধি দলের অন্য সদস্যরা হলেন বাংলাদেশ হাই-টেক কর্তৃপক্ষের অর্থ ও প্রশাসন বিভাগের পরিচালক (যুগ্মসচিব) এএনএম সফিকুল ইসলাম, যুগ্মসচিব সৈয়দ জহুরুল ইসলাম, যুগ্মসচিব মো. মোস্তফা কামাল, অর্থ ও প্রশাসন বিভাগের উপ-পরিচালক খাদিজা আক্তার, অপারেশন ও মেইনটেন্যান্স বিভাগের উপ-পরিচালক নরোত্তম পাল এবং সহকারী পরিচালক (বিনিয়োগ) শাহরিয়ার আল হাসান।

প্রসঙ্গত, গত বছরের ১৮ জানুয়ারি ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তফা জব্বার মন্ত্রণালয়ের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দকে সঙ্গে নিয়ে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে আসেন এবং ক্যাম্পাসে প্রস্তাবিত বঙ্গবন্ধু হাই-টেক পার্কের জন্য চবি কর্তৃক বরাদ্দকৃত ভূমি সরেজমিনে পরিদর্শন করেন। ওই সময় মন্ত্রী বঙ্গবন্ধু হাই-টেক পার্কের জন্য চবি কর্তৃক বরাদ্দকৃত ভূমি পরিদর্শন করে অত্যন্ত সন্তোষ প্রকাশ করেন এবং হাই-টেক প্রতিষ্ঠার ব্যাপারে দ্রুত কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাবৃন্দকে বিভিন্ন দিকনির্দেশনা দেন। একই বছরের ২২ মে (২০১৯) এ বঙ্গবন্ধু হাই-টেক পার্ক নির্মাণের লক্ষ্যে ঢাকাস্থ আইসিটি মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষ এবং চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে এক সমঝোতা চুক্তি (MOU) স্বাক্ষরিত হয়।

এমআইটি/এএইচ

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ManaratResponsive

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন
ksrm