চবিতে সেশন জট নিরসনের দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলন

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) একাডেমিক জট (সেশন জট) নিরসন ও স্থায়ী শিক্ষক নিয়োগের দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের মেইন গেটে তালা দিয়ে আন্দোলন করেছে ফিজিক্যাল এডুকেশন অ্যান্ড স্পোর্টস সাইন্স বিভাগের শিক্ষার্থীরা।

বুধবার (১৭ ডিসেম্বর) দুপুর ১২টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটকের সামনে কাফনের কাপড় পরে বিক্ষোভ করেন শিক্ষার্থীরা।

পরে বিকালে চবি উপাচার্য প্রফেসর ড. শিরীণ আখতারসহ অন্যান্য শিক্ষকরা গিয়ে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের সঙ্গে এ বিষয়ে আলোচনার আশ্বাস দিলে আন্দোলন স্থগিত করা হয়।

জানা গেছে, বিশ্ববিদ্যালয়ে চলছে একাডেমি জট, নেই কোনো স্থায়ী ভবন, নেই শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়াও। বর্তমানে ভাসমানভাবে ক্লাস এবং পরীক্ষা দিচ্ছে শিক্ষার্থীরা। এ সমস্যা নিরসনে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনে কাফনের কাপড় পরে বিক্ষোভ করছে ফিজিক্যাল এডুকেশন অ্যান্ড স্পোর্টস সাইন্স বিভাগের শিক্ষার্থীরা।

এর আগে রেলওয়ে স্টেশনে কয়েকজন শিক্ষার্থী ট্রেনের লোকোমাস্টার থেকে চাবি কেড়ে নিলে শাটল ট্রেন চলাচল বন্ধ থাকে।

১৯-২০ সেশনের শিক্ষার্থী মোস্তাফিজুর রহমান নাঈম বলেন, ‘আমাদের বয়স বেড়েই চলেছে। কিন্তু আমরা এখনও পর্যন্ত বিভাগের জট নিয়ে পড়ে আছি। তারা কি আমাদের চাকরির বয়স বাড়িয়ে দেবে। একাডেমিক জট নিরসন ও স্থায়ী শিক্ষক নিয়োগের দাবিতে আমরা আন্দোলন করছি।’

এ বিষয়ে ফিজিক্যাল এডুকেশন অ্যান্ড স্পোর্টস সাইন্স বিভাগের সভাপতি মোহাম্মদ আবুল মনছুর বলেন, ‘কিছু জটিলতার কারণে শিক্ষক নিয়োগ দেওয়া হয়নি। যার জন্য আসলে নির্ধারিত সময়ে পরীক্ষা ও ক্লাস নেওয়া হয়নি। এজন্য সেশন জট দেখা দিয়েছে। আমরা এ সমস্যা সমাধানের জন্য সর্বোচ্চ চেষ্টা করছি।’

আরএ/ডিজে

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!