চট্টগ্রাম মেডিকেলে হঠাৎ দুদকের অভিযান, হটলাইনে রোগীদের অভিযোগ

0

হটলাইনে রোগীদের অভিযোগ পেয়ে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে অভিযানে গেছে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) একটি দল।

চট্টগ্রাম মেডিকেলে হঠাৎ দুদকের অভিযান, হটলাইনে রোগীদের অভিযোগ 1

বৃহস্পতিবার (১০ মার্চ) সকাল ১১টার দিকে দুদক সমন্বিত জেলা কার্যালয়, চট্টগ্রাম-১-এর উপপরিচালক মো. নাজমুছ সাদাতের নেতৃত্বে এই অভিযান শুরু হয়। তার সঙ্গে রয়েছেন সংস্থাটির উপপরিচালক আবু সাইদ এবং সহকারী পরিচালক এনামুল হক।

জানা গেছে, অভিযানের শুরুতেই দুদক থেকে যাওয়া দলটি প্রশাসনিক ভবনে যায়। এরপর চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের নিচতলায় ন্যায্যমূল্যের সরকারি ওষুধের দোকানে অভিযান চালায় তারা।

পরে দুদকের দলটি ২৬ নম্বর ওয়ার্ডে ঢোকেন। সর্বশেষ পাওয়া খবরে দুদক কর্মকর্তারা ফার্মেসির স্টোর রুমের কাগজপত্র দেখছিলেন।

Yakub Group

২০২০ সালের মাঝামাঝিতে শরীফ উদ্দিনের নেতৃত্বে চট্টগ্রামের স্বাস্থ্যখাতে অনিয়ম-দুর্নীতি অনুসন্ধানে নামে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। দুদকের সেই তদন্তে বেরিয়ে আসে চট্টগ্রামের প্রধান চিকিৎসাকেন্দ্র চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ঘিরে অনিয়ম ও দুর্নীতির অবিশ্বাস্য সব চিত্র। তার আগেই বিএমএ নেতা ফয়সল ইকবালের অনিয়ম-দুর্নীতির সুনির্দিষ্ট ১২ দফা অভিযোগ দুদকে জমা পড়ে।

তাতে বলা হয়, ২০০৯ সালে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর থেকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসক নিয়োগ ও বদলি অবৈধভাবে নিয়ন্ত্রণ করে ফয়সল ইকবাল বিপুল অর্থের মালিক হয়েছেন। এর মধ্যে কেবল ২০১৯-২০২০ অর্থবছরেই ওই হাসপাতালে প্রায় ৪২ কোটি টাকার টেন্ডার তিনি একাই নিয়ন্ত্রণ করেছেন। এছাড়া তিনি চমেক হাসপাতালের নিয়োগ থেকে বদলি, কোটি কোটি টাকার খাবার সরবরাহ, আউটসোর্সিং ব্যবসা, এমনকি ঠিকাদারিসহ সবকিছুই নিয়ন্ত্রণ করেন।

এমন সব অভিযোগ পেয়ে তদন্ত শুরু করেন দুদকের চট্টগ্রাম জেলা সমন্বিত কার্যালয়ের-২ উপ-সহকারী পরিচালক মো.শরীফ উদ্দিন। দীর্ঘ তদন্তে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের টেন্ডার, খাবার সরবরাহ, চুক্তিভিত্তিক লোক সরবরাহ, রক্ত সঞ্চালন বিভাগের অনিয়ম, কেনাকাটা এবং ক্যান্টিনসহ বিভিন্ন খাতে বিপুল অনিয়ম ও দুর্নীতির তথ্য মেলে। জব্দ করা হয় কয়েকটি ব্যাংক একাউন্টও।

এসব অনিয়ম ও দুর্নীতির সুনির্দিষ্ট প্রমাণ পাওয়ার পর বিস্তারিত প্রতিবেদনও দুদকে পেশ করেন শরীফ উদ্দিন। কিন্তু সেটি এখন পর্যন্ত ধামাচাপা পড়ে আছে রহস্যজনক কারণে।

সিপি

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm