চট্টগ্রাম-নোয়াখালী রুটে ট্রেন চলাচল নেই ৫০ বছরেও

ঢাকা থেকে নোয়াখালী সরাসরি ট্রেন চলাচল থাকলেও চট্টগ্রাম থেকে এখনও পর্যন্ত চালু হয়নি কোনো ট্রেন। চট্টগ্রাম থেকে চাঁদপুর ট্রেন চলাচল থাকলেও স্বাধীনতার ৫০ বছর পার হলেও এখনও পর্যন্ত এই রুটে চালু হয়নি কোনো ট্রেন। চট্টগ্রাম থেকে ট্রেনে যেতে হলে প্রথমে কুমিল্লার লাকসাম এবং পরে সেখান থেকে আরেকটি ট্রেন ধরে পৌঁছাতে হয় নোয়খালী। এই রুটে ট্রেন চালু না করার পেছনে রেলের কর্মকর্তারা বগি সংকটের কথা বলছেন। কিন্তু বিভিন্ন সময় রেলের বগি (কোচ) আমদানি করা হলেও এই রুট বারবার অবহেলিত থেকেছে।

জানা গেছে, প্রায় ৩৭ বছর আগে ঢাকা থেকে সরাসরি নোয়াখালী পর্যন্ত ট্রেন চালু করা হয়। ঢাকা থেকে নোয়াখালী রুটে আন্তঃনগর উপকূল এক্সপ্রেস, মেইল ট্রেন নোয়াখালী এক্সপ্রেস নিয়মিত যাতায়াত করছে। চট্টগ্রামে নোয়াখালী জেলার বিপুল সংখ্যক লোকজন বসবাস করলেও তাদের জন্য নেই সরাসরি কোনো ট্রেন। চট্টগ্রাম থেকে লাকসাম স্টেশন হয়ে ইঞ্জিন ঘুরিয়ে চাঁদপুর যাতায়াত করে সাগরিকা ও মেঘনা এক্সপ্রেস ট্রেন।

কিন্তু ঠিক একইভাবে চট্টগ্রাম-লাকসাম-নোয়াখালী হয়ে ট্রেন চলাচল করা যেতো। লাকসাম স্টেশন থেকে দৌলতগঞ্জ, খিলা, নাথের পেটুয়া, বিপুলাসার, সোনাইমুড়ি, বজরা, চৌমুহনী, মাইজদী, মাইজদী কোর্ট, হরিনারায়ণপুর, নোয়াখালী পর্যন্ত ১১টি স্টেশন পড়ে। চট্টগ্রাম থেকে সরাসরি ট্রেন দিলে লাকসাম হয়ে এসব স্টেশন অতিক্রম করে নোয়াখালী পৌঁছানো যেতো। একইসঙ্গে রেলওয়েও লাভবান হতো।

বৃহস্পতিবার (৯ অক্টোবর) রেল পূর্বাঞ্চলের চিফ অপারেটিং সুপারিটেন্ডেন্ট (সিওপিএস) দপ্তরে গিয়ে জানা গেছে, বগি ও ইঞ্জিন সংকট থাকায় এই রুটে ট্রেন দেওয়া হচ্ছে না। তবে নতুন বগি এলে চট্টগ্রাম-নোয়াখালী রুটে ট্রেন চলাচলের পরিকল্পনা আছে।

জানা গেছে, ২০২২ সালে মিটারগেজ ২০০ কোচ ইন্দোনেশিয়া থেকে প্রকল্পের অধীনে নবম ধাপে বাংলাদেশে এসেছে। এছাড়া আরও ১৫০টি কোচ আমদানির কথাও রয়েছে। অথচ এর আগেও রেল পূর্বাঞ্চলে নতুন বগি (কোচ) ও ইঞ্জিন যুক্ত হলেও আলোর মুখ দেখেনি চট্টগ্রাম-নোয়াখালী রুট।

যাত্রী কল্যাণ সমিতির মহাসচিব মোজাম্মেল চৌধুরী জানান, রেল ভবনে অনুষ্ঠিত এক সভায় চট্টগ্রাম-নোয়াখালী রুটে একজোড়া ট্রেন চালুর অনুরোধ করা হয়। কিন্তু এরপরও রেল কর্তৃপক্ষ এই রুটে ট্রেন দেয়নি।

Yakub Group

এই বিষয়ে রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের মহাব্যবস্থাপক জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, ‘চট্টগ্রাম থেকে নোয়াখালী ট্রেন চলাচলের দাবি যৌক্তিক।’

বাংলাদেশ রেলওয়ের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (অপারেশন) সরদার শাহাদাৎ আলী বলেন, ‘এমনিতে বগি সংকট, তবে চট্টগ্রামে বসবাসরত নোয়াখালীর বাসিন্দাদের দাবি থাকলে তা অবশ্যই বিবেচনা করা হবে।’

ডিজে

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ksrm